Wednesday, September 26Welcome khabarica24 Online

বিশেষখবর

রাবি বন্ধ ঘোষণা, শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ

রাবি বন্ধ ঘোষণা, শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ

শেষ পর্যন্ত আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মুখে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে সোমবার সকাল ৮টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। রোববার রাতে রাবি উপাচার্যের বাসভবনে সিন্ডিকেটের জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এছাড়া অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ক্যাম্পাসে বিজিবি ছাড়াও পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। রাবির জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক প্রফেসর ড. ইলিয়াস হোসেন খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, উপাচার্য প্রফেসর ড. মিজানুদ্দিনের সভাপতিত্বে সিন্ডিকেট সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ে উদ্ভুত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করার পর বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ধরনের বর্ধিত ফি প্রত্যাহারের ঘোষণা দিলেও সান্ধ্যকালীন কোর্স বন্ধ ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেয় শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনের অংশ হিসেবে বেলা
নির্বাচন ছিল কেরামতি’

নির্বাচন ছিল কেরামতি’

৫ই জানুয়ারির নির্বাচনের সমালোচনা করে গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, এই নির্বাচন ছিল একটি কেরামতি। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ১৫৩ জন নির্বাচিত হয়েছেন। তাদের মধ্য থেকে সরকার হয়েছে। এটা প্রায় একটি বিশ্বরেকর্ড। তিনি বলেন, এ রকম নির্বাচনের জন্য দেশের মানুষ মুক্তিযুদ্ধ করেনি, দেশ স্বাধীন করেনি। আমরা  যেনতেনভাবে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য প্রশাসন, বিচার বিভাগ দলীয়করণ করার জন্য দেশ স্বাধীন করিনি। কামাল হোসেন সরকারকে উদ্দেশে বলেন, এখনই দলীয়করণ, দুর্নীতি বন্ধ করুন। রাষ্ট্রীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যে নির্যাতন-নিপীড়ন করছে, তা অবিলম্বে বন্ধ করুন। আজ গণফোরামের এক বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন। দলের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, প্রেসিডিয়াম সদস্য মফিদুল ইসলাম খান প্রমুখ নেতারা সভায় বক্তব্য রাখেন। দলের নেতাদের উদ্দেশ্যে ড. কামাল বলেন, কোন এক ব্যক্তির ওপর ভরসা করবেন না। এটি অভিশাপ। দক্ষিণ এশিয়ায় এ সমস্যা
ইনকিলাবের ছাপাখানা খুলে দেয়া হয়েছে

ইনকিলাবের ছাপাখানা খুলে দেয়া হয়েছে

দৈনিক ইনকিলাব’ পত্রিকার ছাপাখানা খুলে দেয়া হয়েছে। আজ সন্ধ্যা  পৌনে  সাতটার দিকে পত্রিকাটির সিলগালা খুলে দেয় সরকার। ইনকিলাব পত্রিকার শিফট ইনচার্জ তৌফিকুর রহমান মানবজমিন অনলাইনকে জানান, আজ সন্ধ্যায় ইনকিলাবের ছাপাখানার সিলগালা খুলে দিয়েছে ডিবি পুলিশ। পত্রিকাটির প্রকাশনায় আর কোন বাধা নেই। আগামীকাল থেকে কাজ শুরু করবো। আশা করছি, সোমবার পত্রিকা প্রকাশ করতে পারবো। উল্লেখ্য, সাতক্ষীরায় যৌথবাহিনীর অভিযান নিয়ে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে তথ্য ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি আইন লঙ্ঘন করার অভিযোগে ১৬ জানুয়ারি ‘ইনকিলাব’ পত্রিকার কার্যালয়ে অভিযান চালায় পুলিশ।  এ সময় তিন সাংবাদিককে আটক এবং পত্রিকাটির ছাপাখানাসহ কার্যালয় সিলগালা করে দেয়া হয়।   উৎস- মানবজমিন
মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ৫ হাজার টাকা

মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ৫ হাজার টাকা

চলতি বছর জানুয়ারি মাস থেকে মুক্তিযোদ্ধারা পাঁচ হাজার টাকা করে মাসিক ভাতা পাবেন বলে জানিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। ইতিপূর্বে মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ছিল তিন হাজার টাকা।বর্তমানে সারা দেশে নিবন্ধিত মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা দুই লাখে উন্নীত হয়েছে। আগে এই সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৪০ হাজারের মতো।  মুক্তিযোদ্ধাকে মাসিক পাঁচ হাজার টাকা করে ভাতা বাবদ ৪০ কোটি টাকা এবং বছরে ৪৮০ কোটি টাকা ব্যয় করতে হবে।জানা গেছে, এবারের ভাতা বৃদ্ধির মধ্যে দিয়ে মহাজোট সরকার ২০০৯ সালে ক্ষমতায় এসে চার দফায় মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বৃদ্ধি করে। প্রথম দফায় গত চারদলীয় জোট সরকারের আমলের ৯০০ টাকা থেকে দেড় হাজার টাকায় উন্নীত করে। দ্বিতীয় ধাপে সেটি ২ হাজার টাকায় এবং তৃতীয় ধাপে  ৩ হাজার টাকায় উন্নীত করা হয়। এবার চতুর্থ দফায় ৩ হাজার টাকা থেকে পাঁচ হাজার টাকায় উন্নত করা হলো।
দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা শুরু

দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা শুরু

  আজ শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। আগামী রোববার দুপুরে আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে এবারের বিশ্ব ইজতেমা। দ্বিতীয় পর্বের সকল প্রস্তুতি ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে যোগ দিতে জামাতবদ্ধ মুসল্লিরা বুধবার থেকেই তুরাগ তীরে ইজতেমা মাঠে আসছেন। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সংখ্যা ও প্রস্তুতি আগের পর্বের মতোই রয়েছে বলে জানিয়েছেন গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান। ইতিমধ্যে শীত ও কুয়াশা উপেক্ষা করে দেশ-বিদেশের লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি ইজতেমা মাঠে এসে উপস্থিত হয়েছেন। তারা জেলাওয়ারি মাঠের ৩৮টি খিত্তায় অবস্থান করছেন। এবারের বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। মুসলিম উম্মাহর দ্বিতীয় বৃহত্তম সম্মেলন বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের সকল প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। গতকালই বিকালে ইজতেমা মাঠে গিয়ে দেখা গেছে ইতিমধ্যে জামা
নিজামী-বাবরসহ ১৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

নিজামী-বাবরসহ ১৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

বহুল আলোচিত ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। অস্ত্র চোরাচালান মামলার রায়ে মৃত্যুদণ্ড ঘোষণা করা হয়েছে জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামী, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, ডিজিএফআই-এর সাবেক মহাপরিচালক মেজর জেনারেল (অব.) রেজ্জাকুল হায়দার, এনএসআই-এর সাবেক মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আবদুর রহিম, উলফা নেতা পরেশ বড়ুয়াসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে। একই ঘটনায় অস্ত্র আইনে দায়ের করা মামলায় তাদের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। চট্টগ্রামের বিশেষ ট্রাইব্যুনাল ১-এর বিচারক এস এম মজিবুর রহমান গতকাল এ রায় ঘোষণা করেন। কড়া নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে মামলা দায়েরের ৯ বছর পর বিচারক এ রায় ঘোষণা করলেন। রায় ঘোষণার পরপরই আদালত চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন আসামি পক্ষের আইনজীবীরা। তারা এ রায় প্রত্যাখ্যান করে রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল দায়েরের ঘোষণা দিয়েছেন। চোরাচালানের ঘটনায়
তারেক রহমানের শাশুড়ির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

তারেক রহমানের শাশুড়ির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের শাশুড়ি সৈয়দা ইকবালমান্দ বানুর বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। পাশাপাশি হাইকোর্টে রিট করেছেন ইকবালমান্দ বানুর  আইনজীবী। এ রিটের শুনানি হবে আগামী রোববার। গতকাল বিকালে রমনা থানায় দুদকের  মামলা দায়ের করেন উপ-পরিচালক আর কে মজুমদার বাদী হয়ে। সূত্র জানায়, সম্পদ বিবরণীর নোটিশ জারির পর কমিশনে নির্দিষ্ট সময়ে হিসাব দাখিল না করার অপরাধে ইকবালমান্দ বানুর বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪-এর ২৬(২) ধারায় এ মামলা  হয়েছে। ২০১২ সালের ২৫শে জানুয়ারি ইকবালমান্দ বানুর সম্পদ বিবরণী দাখিলের  নোটিশ জারি করে দুদক। ওই  নোটিশ ইকবালমান্দ বানুর পক্ষে তার বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক জাকির  হোসেন  গ্রহণ করেন। অভিযুক্ত ইকবালমান্দ বানুর বরাবর সম্পদ বিবরণী দাখিলের নোটিশ জারি করা হলে তিনি ওই নোটিশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট করে স্থগিতাদেশ পান। পরে কমিশনের পক্ষে আপিল ব
জামায়াতবিহীন বিএনপির সমাবেশ

জামায়াতবিহীন বিএনপির সমাবেশ

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গতকালের গণসমাবেশে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের বেশির ভাগ শরিক দলের নেতারা উপস্থিত থাকলেও জামায়াতে ইসলামীর কাউকে প্রকাশ্যে দেখা যায়নি। সরকারবিরোধী আন্দোলনে এর আগে বিএনপির ডাকা সমাবেশ ও কর্মসূচির অগ্রভাগে জোরালোভাবে উপস্থিত থাকত জামায়াতে ইসলামী ও এর অঙ্গসংগঠন ছাত্রশিবিরের নেতা-কর্মীরা। নিজেদের দাবি লেখা ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে স্লোগানের রব তুলত তারা। কিন্তু গতকাল এর কিছুই ছিল না। দুপুর সোয়া ২টায় শুরু হয়ে সন্ধ্যা পৌনে ৬টা পর্যন্ত চলে সমাবেশ। এতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে যোগ দেয় বিনপির তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বক্তব্য শোনার পাশাপাশি তাদের অনেকেই কেন্দ্রীয় ও ঢাকার নেতাদের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ মন্তব্য করে। তারা বলে, কেন্দ্রীয় ও ঢাকার নেতাদের কারণেই সরকারবিরোধী আন্দোলনে বিএনপি ব্যর্থ হয়েছে। অজ্ঞাত স্থান থেকে প্রেস বিজ্ঞপ্তি বা ভিডিওবার্তা পাঠিয়ে আ