Sunday, May 24Welcome khabarica24 Online

খবরিকা আর্কাইভ

ওচমানপুরে যুবলীগ নেতা মেজবাউল করিম সোহেলের উদ্যোগে মানবিক খাবার সামগ্রী বিতরণ

ওচমানপুরে যুবলীগ নেতা মেজবাউল করিম সোহেলের উদ্যোগে মানবিক খাবার সামগ্রী বিতরণ

নিজস্ব প্রতিনিধি : মীরসরাই উপজেলার ৫নং ওচমানপুরে যুবলীগ নেতা মেজবাউল করিম সোহেল এর উদ্যোগে ৩০০ পরিবারকে মানবিক খাবার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। রবিবার ( ২৪ মে) দুপুর ১২টায় আজমপুর বাজারে উক্ত মানবিক খাবার সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন মীরসরাই উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জসিম উদ্দিন। দু:স্থ ও কর্মহীন মানুষের মাঝে এমন মানবিক কার্যক্রমকালে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আশরাফ উল্লাহ চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য লিয়াকত আলী, সদস্য রাহাত মোর্শেদ, ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুল মোস্তফা সহ এলাকার প্রবীন আওয়ামীরীগ নেতৃবৃন্দ ও যুবলীগ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীগন। উল্লেখ্য যে, উক্ত কার্যক্রমের উদ্যোক্তা জনাব মেজবাউল করিম সোহেল মীরসরাই উপজেলা যুবলীগের আগামীর সাধারন সম্পাদকপ্রার্থী। ইতিমধ্যে তিনি জেলা ছাত্রলীগ সহ বিভিন্ন পর্যায়ে সফল ভাবে দায়িত্ব পালন করেন। এলাকার মানুষের জন্য
বিবর্ণ হতাশা : চন্দনা চক্রবর্তী

বিবর্ণ হতাশা : চন্দনা চক্রবর্তী

  সেই সন্ধ্যায়,, বিবর্ণ হতাশা গুলি যখন একটু একটু করে ভেতর টা কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে, হৃদয় কে করছে রক্তাক্ত দৃষ্টি গুলো হয়ে আসছে ঝাপসা, তুমি তখনও ফিরে চাওনি, শুনতে চাওনি অসহায়ত্বের আর্তনাদ, আহত হৃদয় খানি বার বার বলেছিলো, যেওনা- ওগো যেওনা আমাকে একা করে- স্বল্প ক্ষনের গভীর কষ্টে ডুবে ছিলে তুমি, তাই তো বুঝতে পারোনি, আমার গভীরতা, আমার নিরবতা, হয়তো একদিন ঠিক বুঝবে সেদিন তুমি আমায় খুঁজবে । ।
দাদা নাতির গল্প ( ১)  : সোনা মিয়া

দাদা নাতির গল্প ( ১) : সোনা মিয়া

তখনকার দিনে বিভিন্ন জায়গায় পন্ডিতের আসর বসতো।এক বাড়িতে দাদা নাতি দুজনে ছিল, নাতি বিভিন্ন জায়গায় পন্ডিতের শোলক বলত, আর দাদা এটা কে সারমর্ম বুজাইদিতো। পন্ডিতির জন্য ১০ টাকা পেত, দাদা নাতি ৫ টাকা করে নিতো, নাতি বৌউয়ের কাছে যাই গল্প করতো,আজকে আমি এমন ভাবে পন্ডিতি করছি, কালকে বলতো আমি এমন করছি, তখন নাতি বৌ বুদ্ধি দিলো,তোমার দাদাকে টাকার ভাগ দাও কেন,তুমিই তো পন্ডিতি কর, তখন নাতি ঠিক করলো দাদা কে ভাগ দেবো না। অন্য একদিন দাদা কে না নিয়ে,একা চলে গেল। সেখানে যাওয়ার পরে লোকজন জিজ্ঞাসা করল আজকে কি দিয়ে ভাত খেয়েছেন। তখন নাতি বললো আমাদের উঠোনে ইছা গুড়া মাছ পেয়েছি সেটা আমার বৌ রান্না করেছে খেতে খুব মজা হয়েছে। তখন উৎসুক লোক জিজ্ঞাসা করল উঠানে ইছা মাছ পাওয়া যায় কিভাবে। তখন নাতি আর কিছু বলতে পারেনা। তখন লোকজন নাতিকে, একটা গাছের সাথে বেধে রেখে দাদা কে খবর দিলো।দাদা নাতির কথা শুনে যথা সময়ে হাজির
অন্তকাল বেঁচে থেকো  : পারভীন লিয়া

অন্তকাল বেঁচে থেকো : পারভীন লিয়া

সেদিন সন্ধার আধো আলো, আধো আঁধারে সে হাটতে হাটতে মিলিয়ে গেলো। নিজের চিন্তার ভেতরে বেঁচে থাকার অস্থির অচেনা মানুষটা পরিচিত পথ ধরে হয়তো পৌছে যাবে সেই শহরে, নিঃশ্বাস বন্ধ হওয়ার গন্তব্যে, বহুক্ষণ আমি দাঁড়িয়ে থাকলাম, ক্লান্ত পায়ে ধীরে ধীরে একটু সামনে যেতেই আর দেখতে পেলাম না। অস্থির নয়নে অন্ধকারে উকিঝুকি মেরে দেখি মিলিয়ে গেছে অজানায়, আঁধারের যন্ত্রণা লেপটে থাকা পৃথিবীটা আমার সাথে ঠিক আগের মতই দাঁড়িয়ে আছে। তাঁর যাওয়ার পথে বহু দূর চেয়ে থাকলো জেগে থাকা চোখ, তবুও থামেনি, থামবে না, যেন থামতে নেই। সেই যে গেছে, ব্যাথার বাহানাতে পিছু ফিরে দেখেনি আর একটিবারও। মনে কি পড়েনি তার কষ্ট বহন করা বাহনটি ভেঙ্গে চুরে দুমড়ে যেতে পারে। হয়তো পেরেছে। সেই যে ছুটি নিয়েছিলো তারপর আর দেখা হয়নি, বহু বছর কেটে গেলো, বহু কাল পরে অন্য পথে সে-একটু অন্যভাবে। জানা নেই তার প্রিয় পথের মানুষটি ঠিক আগের মতোই আছে, তাঁর স্বপ্নের
শিল্পপতি ফখরুল ইসলাম খান সি আই পির পক্ষ হতে মীরসরাই পৌর এলাকায় ৮০০ কর্মহীন গরীব, দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

শিল্পপতি ফখরুল ইসলাম খান সি আই পির পক্ষ হতে মীরসরাই পৌর এলাকায় ৮০০ কর্মহীন গরীব, দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

মনির উদ্দিন মান্না : মীরসরাই উপজেলা ব্যাপী সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১০ বছর মেয়াদি ‘গোল্ডেন ভিসা’ (আমিরাতের স্থায়ী আবাসন) সম্মানসূচক গোল্ডেন ভিসা স্বপরিবার অর্জনকরি, মীরসরাই সমিতির সম্মানিত সভাপতি, জাতীয় কবিতা মঞ্চের প্রধান পৃষ্ঠপোষক, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি স্বরুপ আল সুমাইয়া গ্রুপ, আবুধাবি ও এফ, আই ,কে,প্রোপার্টিজ ডেভেলপমেন্ট লিঃ,বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান, খান কল্যাণ ট্রাষ্ট এর চেয়ারম্যান, হোটেল সুইস গার্ডেন ইন্টারন্যাশনাল এর চেয়ারম্যান,মীরসরাই কৃতিসন্তান, বিশিষ্ট শিল্পপতি, সমাজ সেবক, মানবতার কবি ফখরুল ইসলাম খান সিআইপির ব্যাক্তিগত পক্ষ হতে ৯নং মীরসরাই ইউনিয়ন ও মীরসরাই পৌরসভার ৮০০ কর্মহীন গরীব, দুস্থ-অসহায় মানুষের মাঝে মানবিক খাবার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। উক্ত মানবিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে স্থানীয় ৯নং মীরসরাই ইউনিয়নের কার্যালয়ে গত সোমবার ( ১৮ মে) ৮০০পরিবার কে মানবিক
চকিত প্রাণ : সিত্তুল মুনা সিদ্দিকা

চকিত প্রাণ : সিত্তুল মুনা সিদ্দিকা

চকিত প্রাণ অনমনে রয়ে করছে এপাশ ওপাশ, স্থিতিজড়তা আচ্ছন্ন থেকে মেলেনা হিসাব নিকাশ। সমান্তরালে হাঁটা তনু মনে, এ কেমন পরবাস? এরই মাঝে তাপদাহে শ্রান্ত, অগনিত উৎকন্ঠার প্রশ্বাস, অগোচরে হানা দেওয়া বালাই করছে পৃথিবীতে ত্রাস! প্রলয়ের ঢঙে দেখায় কেবল, আপন নীতির প্রকাশ! জানালার কাছে ডাকছে ঐ স্বাধীন মুক্তো আকাশ, ছাদ বাগানে ফুলের পাশে আমাদের মুগ্ধ গৃহবাস।
করেরহাটে প্রতিবন্ধী এবং রিকসা চালকদের পাশে চেয়ারম্যান পুত্র কামরুল হাসান মুরাদ

করেরহাটে প্রতিবন্ধী এবং রিকসা চালকদের পাশে চেয়ারম্যান পুত্র কামরুল হাসান মুরাদ

কামরুল ইসলাম :: আমাদের সবার পক্ষে মহৎ কাজ করা সম্ভব হয় না। তবে চাইলেই মহৎ ভালোবাসা দিয়ে আমরা ছোট ছোট কাজ করতে পারি। এই ছোট ছোট কাজের অংশ হিসেবে মীরসরাই উপজেলার ১নং করেরহাট ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম আবু ছালেক কোম্পানির স্মরণে প্রতিবন্ধী এবং রিকসা চালকদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরন করা হয় । প্রায় একশত দশ পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার বিতরন করা হয়। উপহার সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে সেমাই, লাচ্ছা সেমাই, দুধ, চিনি, সাবান, নুডুলস,বিস্কুট। গত ১৭ই মে এসব উপহার সামগ্রী প্রতিবন্ধী ও রিকসা চালকদের হাতে তুলে দেন মরহুম আবু ছালেক কোম্পানির সুযোগ্য পুত্র এবং রিয়াজুল হাছান ব্রিকস ম্যানুফেকচারিং (আর.বি.এম) এর পরিচালক কামরুল হাসান মুরাদ। সাইবেনি খীল এর নিজস্ব কার্যালয়ে এই উপহার সামগ্রী বিতরনের কার্যক্রম শুরু হয়। এছাড়াও গোপনে করোনাকালীন দুর্যোগে প্রায় পাঁচশত পরিবারের জন্য খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেন। উল্লেখ্য, করে
সোমা মুৎসুদ্দী’র দুটি কবিতা :  # মেঘবরণ কন্যা  # মন খারাপের দিন

সোমা মুৎসুদ্দী’র দুটি কবিতা : # মেঘবরণ কন্যা # মন খারাপের দিন

সোমা মুৎসুদ্দী'র দুটি কবিতা ------------------- মেঘবরণ কন্যা ---------------- যাবে তুমি আমার সাথে উজানতলী গাঁও মেঘ বরণা, রূপের কন্যা ওঠো আমার নাও আমার গাঁয়ে আছে শোন পাখ পাখালীর মেলা ফড়িং যেথা উড়ে উড়ে নিত্য করে খেলা বসতে দেবো পিড়ি পেতে খেতে দিবো পিঠা তোমার সাথে মনের সুখে বলব কথা মিঠা নাইতে নেমো দীঘির জলে পদ্ম ফুলের সাথে কইবে কথা চাঁদের সাথে পূর্ণিমারই রাতে মেঘবরণা রূপের কন্যা ওঠো আমার নাও তোমায় নিয়ে যাবোই আমি উজানতলী গাঁও ------------------------- --------------------- মন খারাপের দিনগুলোতে রবীন্দ্রনাথ থাকেই সাথে নতুন করে যোগ হলো যে অরিজিৎ এর গান শোনা নূতন আশায় স্বপ্ন বুনি নূতন করেই দিন গোনা। সকালেরই স্নিগ্ধ আমেজ মনে আমার,দেয় দোলা আকাশের মতো হয়না কেনো বন্ধু সবার,মন খোলা দূরের পাহাড় ডাক দিলো যায় ঘর ছেড়ে আজ বাইরে আয় ভালোটাকে গ্রহণ করে খারাপটাকে দে