সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

কবিতা ও গল্প

অনিকা সুলতানা’র কবিতা

অনিকা সুলতানা’র কবিতা

কবিতা ও গল্প, খবরিকা আর্কাইভ, বিনোদন, সাহিত্য-সংগঠন, স্বজন, স্লাইড
মৃত্যু অপ্রিয় সত্যের অপর নাম আর দেখা হবে না প্রভাতের সেই অরুণ রাঙা আলো,আর দেখা হবে না বাতাসের মৃদুমন্দ দোলায়িত প্রকৃতি দেখা হবে না গোধূলি, রাতের আকাশ, ফসলের মাঠ, হবে না জীবনের তাগিদে ছুটে চলা,হবেই বা কি করে জীবনটাই তো নেই উদভ্রান্ত আজ আত্মার অন্তিম নীলিমায়।। কোথায় জীবনের সেই পারাবার? যেই পারাবারই চির অমৃত্যু পথের দ্বার! প্রতীক্ষা কোন এক ইন্দ্রজালের সুপ্ত বাঁশরি উঁকি দিয়ে তোমাকে ডাকছে প্রতীক্ষার সপ্তসিন্ধুর পাড়ে, নোনাজলের এক মহাসমুদ্র, দিগন্তে আকাশ মিশেছে মিশে নি শুধু মহাকালের গহ্বরে মিলিয়ে যাওয়া কালের ঘন্টা, দিবানিশি তোমারই টানে অকূল আহ্বান আমি দেখেছি আমি দেখেছি শ্রাবনের আকাশের তপ্ততা, দেখেছি কালের গর্ভে বিলীন হতে সততা ও নিরাপত্তা। দেখেছি সুখের সাগরে বৃষ্টির প্লাবন, রক্তাক্ত মন মেঘের ভেলায় উড়ন্ত গগন। দেখেছি হাজারও জীবন রাস্তায় গড়াগড়ি, দেখেছি মিষ্টি আবেশ...
বইমেলায় এসেছে কবি ও সাংবাদিক মনির উদ্দিন মান্নার ‘আদর্শ পিতা নুরুল ইসলাম কোম্পানি আত্মজীবনী’ সহ ৭টি বই

বইমেলায় এসেছে কবি ও সাংবাদিক মনির উদ্দিন মান্নার ‘আদর্শ পিতা নুরুল ইসলাম কোম্পানি আত্মজীবনী’ সহ ৭টি বই

কবিতা ও গল্প, খবরিকা আর্কাইভ, গ্যালারি, জনপদ, জাতীয়, প্রথম পাতা, বিশেষখবর, মীরসরাই, সংবাদ শিরোনাম, সারা-দেশ, সাহিত্য-সংগঠন, স্বজন, স্লাইড
নিজস্ব প্রতিনিধি :: অমর একুশে বই মেলা -২০২৪ এসেছে আরব আমিরাত প্রবাসী কবি, লেখক ও সাংবাদিক মোহাম্মদ মনির উদ্দিন মান্নার রচিত নতুন বই ‌''আদর্শ পিতা নুরুল ইসলাম কোম্পানির আত্মজীবনী'। বইটিতে পাওয়া যাবে নানান চড়াই উৎরাই তাঁর পরিবারের সফলতার নানান গল্প। বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও শিল্পপতি এবং শিক্ষানুরাগী জনাব নুরুল ইসলাম কোম্পানির ৯ পুত্র এবং ৬ কন্যা সন্তানের জনক।তিনি দেশে বিদেশে পুত্র-কন্যাদেরকে উপযুক্ত শিক্ষায় শিক্ষিত করার ঘটনাবহুল গল্প। এছাড়াও তিনি দেশ - বিদেশে বিভিন্ন তাঁর প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান করেছে। তিনি অত্যন্ত পরিশ্রম ও অধ্যবসায়ের মাধ্যমে তাঁর মেধা ও পুঁজি ব্যবহার করে একজন সাধারণ ব্যবসায়ী থেকে বর্তমানে চট্টগ্রাম জেলার অন্যতম ব্যক্তিত্বে পরিণত হয়েছিলেন ৷ তিনি তার বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের দ্বায়িত্ব পালন করে আসছেন। সরকারী তাঁর কর্মময় জীবনের স্বীকৃতি স্বরূপ- ১৯৯১ সালে ...
মাহবুব পলাশ এর ‘ কবির ছাইভস্ম’ : উত্তরাধুনিক শব্দের যুথবদ্ধ ব্যঞ্জনা

মাহবুব পলাশ এর ‘ কবির ছাইভস্ম’ : উত্তরাধুনিক শব্দের যুথবদ্ধ ব্যঞ্জনা

কবিতা ও গল্প, খবরিকা আর্কাইভ, গ্যালারি, জনপদ, জাতীয়, প্রথম পাতা, বিশেষখবর, মীরসরাই, সংবাদ শিরোনাম, সাহিত্য-সংগঠন, স্বজন, স্লাইড
নিজস্ব প্রতিনিধি :: এবারের কবিতার বই ‘ কবির ছাইভন্ম ’ নিয়ে কবি মাহবুব পলাশ বলেন ‘আমার বিশ্বাস এই বইটিতে আত্মজ নানান বৈচিত্রময় অনুভূতিগুলো উত্তরাধুনিক শব্দের সংকলনের সুতোয় যুথবদ্ধ করে হৃদয় নিংড়ানো ব্যঞ্জনার প্রয়াস করা হয়েছে। আশা করি বইটি পাঠকপ্রিয়তা পাবে। বিশেষ করে কবিতার পাঠকদের মন ছূঁতে পারবে। ’ এটি তাঁর ৬ষ্ঠ কবিতার বই। ইতিপূর্বে কলকাতা, ঢাকা ও চট্টগ্রামের বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছিল যথাক্রমে দু:খের ফেরিওয়ালা, হৃদয় গহিনে, গহীন অরণ্যে, ধূসর নি:সঙ্গতা ও হুদয়ের কান্না। চট্টগ্রাম ও ঢাকার একুশে বইমেলায় খুবই সাদামাটা অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে মোড়ক উম্মোচন হলো কবি ও সাংবাদিক মাহবুব পলাশ এর ' কবির ছাইভস্ম' কবিতার বই । গত ১৩ ফেব্রুয়ারী চট্টগ্রামের সিআরবি শিরিসতলায় কবির ছাইভস্ম’ কবিতার বইয়ের মোড়ক উম্মোচন করেন বইয়ের প্রথম উৎসর্গ ব্যক্তিত্ব দৈনিক আজাদীর ফিচার এডিটর প্রদীপ দেওয়ানজী। এসময় আরো উপস...
মানসিক অনুভূতি :: হাছনা জান্নাত মিকাত

মানসিক অনুভূতি :: হাছনা জান্নাত মিকাত

কবিতা ও গল্প, খবরিকা আর্কাইভ, গ্যালারি, বিজ্ঞান-প্রযুক্তি, বিনোদন, মুক্তাঙ্গন, সম্পাদকীয়, সাহিত্য-সংগঠন, স্বজন, স্লাইড
যথারীথি সালামত ভাইয়ের সাথে কথা হচ্ছিল। আগে থেকে জানিয়ে রাখি ,সালামত ভাই কিন্তু উচ্চ শিক্ষিত এবং পেশায় চাকুরিজীবী, ভীষণ সুগন্ধি মাখেন,জামা কাপড় ও বেশ রুচিসম্মত। বয়স ষাট ছুঁইছুঁই। যদিও পুরুষ মানুষের বয়স বলে কিছু থাকতে নেই। রবীন্দ্রনাথ ও তাই বলেছেন। পুরুষ মানুষ সতেরোতে যা , সত্তুর এ ও তাই। যাই হোক চানঁ কপাল হওয়াতে , ভাগ্যক্রমে সালামত ভাইয়ের দুই বউ। প্রথম জনের বয়স খানিকটা বাড়তি হলেও, দ্বিতীয়জন লাউয়ের ডগার মতো বেশ কচিঁ।কিন্তু সালামত ভাই ব্যলেন্স করে একেবারে গুছিয়েই। অতি পরিপক্ষ হলে যা হয়! খুব সুন্দরভাবেই চলছে জীবন। বেশ ফুরফুরে মেজাজে। একদিন হঠাৎ মনের ভিতর খুব আকুতি জাগলো, সালামত ভাইকে প্রশ্ন করার। চোখের লাজ- লজ্জা ভেঙে , প্রশ্নটা করেই ফেললাম! আমি: আচ্ছা ভাই আপনার প্রথম বউয়ের সাথে আপনার সম্পর্ক কেমন? সালামত ভাই :- ধর্মীয়ভাবে সে আমার বউ। সে আমার বৈধ বউ ও ।কিন্তু তার সাথে আমার কোন শারীরি...
তুমি বিষ্ময় :: হাছনা জান্নাত মিকাত

তুমি বিষ্ময় :: হাছনা জান্নাত মিকাত

আন্তর্জাতিক, কবিতা ও গল্প, খবরিকা আর্কাইভ, খবরিকাকাগজ, গ্যালারি, বিনোদন, মুক্তাঙ্গন, সাহিত্য-সংগঠন, স্বজন, স্লাইড
তুমি আসলে ঘুঘুর পালকে সজ্জ্বিত দাঁড়কাক..... ভেড়ার চামড়ায় ঢাকা নেকড়ে... তোমাকে দেখলে যা মনে হয়, তুমি তার বিপরীত স্বভাবের লোক..... সাধুর ছদ্মবেশে তুমি শয়তান.... আর কি কখনো এমন খারাপ একটা বইকে এতো চমৎকার মোড়কে বাঁধায় করা হয়েছিল !
কদম ফুল    ::   সুবর্ণা রাণী নাথ

কদম ফুল :: সুবর্ণা রাণী নাথ

আন্তর্জাতিক, আমিরাত সংস্করণ, কবিতা ও গল্প, খবরিকাকাগজ, গ্যালারি, বিনোদন, সাহিত্য-সংগঠন
  আসতে পারতে না হয়,শ্রাবণের ধারা হয়ে, কলমিলতা হয়ে রাখতাম জড়িয়ে, সারাদিন শুনাতাম বাদলের গান, সাথে থাকত তোমার মাতাল ঘ্রাণ। কখনো রিমঝিম শব্দে,কখনো বা অঝোর ধারায় ঝরতো বর্ষণ। এমনি দিনে পেতাম যদি তোমারই দর্শন। এমন দিনে হতে পারে কিছু ভুল হোকনা,সমস্যা কি? কারণ তুমিতো আমার সেই প্রিয় কদমফুল।।
আগুনের তাপ : মাহবুব পলাশ

আগুনের তাপ : মাহবুব পলাশ

আমিরাত সংস্করণ, কবিতা ও গল্প, খবরিকাকাগজ, গ্যালারি, প্রথম পাতা, বিনোদন, মুক্তাঙ্গন, সাহিত্য-সংগঠন, স্বজন, স্লাইড
তোমার অগ্নিশিখা আমায় পোড়াবে না আর কারন যে অলৌকিক রৌদ্রময় গৌধুলী হটিয়ে যে আগুনের তাপ আমি অনুভব করেছি, সেই দীপ্তিমান রেখার কুন্ডুলীতে আজো আমি আপাদমস্তক কেঁপে উঠি রক্তিম আভায় মেঘের খ্যাপা ডম্বরু গুঞ্জরিত তানে। আমার বক্ষে জ¦লে উঠছে আজো সেই প্রাচীণ রহস্য জ্যোতির্ময় উজ¦ল আলোয় জেগে উঠে তবু আগুনের হলকা কখনো ভয়ার্ত আর্তনাদে কেন এতো অশ্রু ঝরে অধোস্ফুট কোমল সঙ্গীত আজো উষ্ণতার বেড়িতে আচ্ছন্ন রক্তাভ উজ্বল্যে। অদৃষ্টের সীমারেখা ডিঙ্গানো অন্তিম গস্থব্যে রুপালী নক্ষত্র আজো মিটিমিটি জ্বলে ধূসর প্রান্ত মাড়িয়ে আজ আমি অগ্নিতাপে অঢেল বৈভব কালস্রোতে লক্ষভ্রষ্ট ছাইভস্ম নিরুত্তাপ সোনালী স্নানে হিম আলোকমালায় তোমার প্রণয়খেলার রুপালি চাকায়।...
ক্ষমা করে হে  পিতা : মাহবুব পলাশ

ক্ষমা করে হে পিতা : মাহবুব পলাশ

কবিতা ও গল্প, খবরিকা আর্কাইভ, খবরিকাকাগজ, গ্যালারি, চট্টগ্রাম, জনপদ, জাতীয়, প্রথম পাতা, বিশেষখবর, মীরসরাই, সংবাদ শিরোনাম, সারা-দেশ, সাহিত্য-সংগঠন, স্বজন, স্লাইড
হে পিতা, তোমার সেই বর্জ্রকন্ঠবাণীর তর্জনীর তেজদীপ্ত উচ্চশীর আজ মর্যাদা হারাতে বসেছে । ষোল কোটি মানুষ আজ হতাশায় আচ্ছন্ন ছাপ্পান্নহাজার বর্গমাইল জুড়ে আজ দীর্ঘশ্বাস কেবল। কেউ সম্পদের পাহাড় গড়ে নানাকূট কৌশলে কেউ দখল, গোটা বেড়ি কিংবা দীগন্ত অবধি মাঠের সীমানা নিজের দখলে নেবার নেশায় মত্ত। এই চাই, সেই চাই, আরো চাই আমিই প্রভু, গোটা দেশ আমার চাই। হে পিতা তুমি এই দেশটা উপহার দিয়ে গেছ কখনো কিছুই চাওনি নিজের জন্য, বিনিময়ে নিজের রক্তাক্ত দেহটি ও দিয়ে গেছ এই মাটিতে। সেই ধ্বংসস্তুপ আর শকুনের থাবা থেকে এই দেশ মাতৃকা আর জাতিকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে তোমার সর্বহারা এতিম কন্যা আজ অবধি রেখেছে প্রাণ বাজি। বিশ্বময় তোমাকে ও তোমার দেশকে করে তুলছে বিস্মিত আলোর অনুরণনে। কিন্তু হে পিতা, কি করে অবশিষ্ট সব সম্পন্ন করবে তোমার কন্যা ! তোমার এই বাংলায় উর্বর সোনালী ফসল ফলাতে বাংলার দামাল মানুষ এখনো ...