মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

জলাবদ্ধতায় নাকাল চট্টগ্রামবাসী

fe3e56efddeaa7f91fbce68280d892d3-3

অস্বাভাবিক জোয়ার ও ভারি বৃষ্টিতে জলাবদ্ধ হয়ে পড়েছে চট্টগ্রামের বেশকিছু এলাকা। এতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে ব্যবসা-বাণিজ্য। যাতায়াতের দুর্ভোগে পড়েছে নগরবাসী। জলাবদ্ধতার কারণে নগরীর বিভিন্ন সড়কে যানবাহন কমে যায়। এছাড়া রিকশা বের হলেও ভাড়া আদায় করা হচেছ দ্বিগুনের বেশি। মঙ্গলবার সকালে নগরীর বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা গেছে অক্সিজেন, হামজারবাগ, মুরাদপুর, আতুরার ডিপো, বহদ্দারহাট, শুলকবহর, কাতালগঞ্জ, নাসিরাবাদ, বায়োজিদ, ষোলশহর, চকবাজার, পাঁচলাইশ, ডিসি রোড, খাজা রোড, চান্দগাঁও, মোহরা, বাকলিয়া, চাক্তাই, কোরবানিগঞ্জ, মাস্টারপুল, বৌ বাজার, মিয়াখান নগর, রাজাখালী, দেওয়ানবাজার, আগ্রাবাদ, ছোটপুল, বড়পুল, সিডিএ, হালিশহর, পাহাড়তলী, সরাইপাড়া, সাগরিকাসহ নগরীর নিচু এলাকায় পানি জমে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে, নিয়মিত জোয়ারের পানি প্রবেশ করায় চট্টগ্রামের হালিশহর, বেপারীপাড়া, সিডিএ, মুরাদপুর, বহদ্দারহাট, বাকলিয়া, কাতালগঞ্জসহ নিম্নাঞ্চলে থাকা সহস্রাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অর্ধলাখ শিক্ষার্থীকে প্রতিদিনই মুখোমুখি হতে হচ্ছে দুর্ভোগের। জলাবদ্ধতার কারণে স্থবির হয়ে পড়েছে বাণিজ্যিক রাজধানীর ব্যবসা-বাণিজ্যও। আগ্রাবাদ এলাকায় সরকারি ও বেসরকারি ৪৫টি ব্যাংকের কার্যালয় থাকলেও জোয়ার ও বৃষ্টির পানিতে প্রতিনিয়ত দুর্ভোগ পোহাতে হয় গ্রাহকদের। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পতেঙ্গা কার্যালয়ের আবহাওয়া কর্মকর্তা আবদুল হামিদ জানান, মঙ্গলবার সকাল নয়টা পর্যন্ত ১৪৮.৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে আগামী ২৪ ঘণ্টায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরণের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। কোথাও কোথাও মাঝারি ধরণের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে।  আগামীকাল (বুধবার) পর্যন্ত এ প্রভাব থাকতে পারে বলে জানান তিনি।