শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২২, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

মীরসরাই সরকারি মডেলে সামাজিক সম্প্রীতি সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিনিধি :: ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মীরসরাই মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সামাজিক সম্প্রীতি সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে অংশ নেয় ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। মীরসরাই উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয় মীরসরাই সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে।
সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “দীপ জ্বেলে যাই” এর সহযোগিতায় সমাবেশের শেষে ৪টি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে স্বরচিত কবিতা, মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক কবিতা আবৃত্তি ও জাগরনের গানের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। মীরসরাই সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, মারুফ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, মিঠাছড়া উচ্চ বিদ্যালয় ও জেবি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে হারিয়ে যাওয়া কাবাডি, কানাকানি ও ফুলটোকা খেলাও অনুষ্ঠিত হয়। এসব খেলা শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যাপক আলোড়ন তোলে।
মীরসরাই সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্টার সিনেপ্লেক্সের এমডি, আইটি বিশেষজ্ঞ ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের নেতা মাহবুবুর রহমান রুহেল। প্রধান আলোচক ছিলেন মীরসরাইয়ের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিনহাজুর রহমান। বিশেষ আলোচক ছিলেন মিরসরাই থানার ওসি মো. কবির হোসেন, দীপ জ্বেলে যাই এর প্রতিষ্ঠাতা ও সাংবাদিক শারফুদ্দীন কাশ্মীর।
বক্তারা বলেন, বর্তমানের শিক্ষার্থীরা মোবাইল আসক্তির মাধ্যমে নানান অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। মোবাইলের মাধ্যমে ভালো কাজও করা যায়, অনেক যুবক করছে। কিন্তু প্রায়শই দেখা যায় যুবকরা ভালো কাজের থেকে খারাপ কাজই বেশি করছে বাংলাদেশের যুব সমাজ। এর থেকে যুব সমাজকে মুক্ত করতে হবে। সে কারনে এ ধরনের অনুষ্ঠান বেশি বেশি করতে হবে। তারা বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়ীক সম্প্রীতির দেশ। কিন্তু মাঝে মাঝে একটি গোষ্ঠী এই অসাম্প্রদায়ীক দেশকে সাম্প্রদায়ীক দেশ হিসাবে পরিচিতি করতে প্রয়াস চালায়। এতে তারা বার বারই ব্যর্থ হয়। যে কোনো দেশের উন্নয়নের জন্য পুরো দেশের মধ্যে সামাজিক সম্প্রীতি জরুরি। সামাজিক ভাবে জনসংখ্যায় কম এমন জনগোষ্ঠিকে দমন পীড়নের মাধ্যমে দেশ, সভ্যতা চলতে পারে না। তারা বলেন, অতীতে জেনে না জেনে পরিবেশের অনেক ক্ষতি সাধন করা হয়েছে। ভবিষ্যত প্রজন্ম যাতে পরিবেশ রক্ষায় উদ্যোগী সে জন্য এখন থেকে কাজ করতে হবে।
জাগরনের গান প্রতিযোগিতায় প্রথম হয় জেবি উচ্চ বিদ্যালয়ের হিমেল, দ্বিতীয় হয় মীরসরাই সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের কিশোরী কর্মকার, ও তৃতীয় হয় মারুফ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের অর্ণব দেবনাথ। মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক কবিতা আবৃত্তিতে প্রথম হয় মারুফ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের তাহিয়াতুল করিম, দ্বিতীয় হয় জেবি উচ্চ বিদ্যালয়ের লামিয়া ও তৃতীয় হয় জেবি উচ্চ বিদ্যালয়ের শরন নাথ। স্বরচিত কবিতায় প্রথম হয় মীরসরাই সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ফয়সাল করিম, দ্বীতিয় মারুফ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের মো. আবরার জাওয়াদ, তৃতীয় হয় জেবি উচ্চ বিদ্যালয়ের শরন নাথ। কানাকানি খেলায় বিজয়ী হয় মীরসরাই সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের দল, রানার্স আপ হয় মারুফ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। কাবাডি খেলায় বিজয়ী হয় মীরসরাই সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় দল, রানার্স আপ হয় জেবি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। ফুলটোকা খেলায় বিজয়ী হয় মিঠাছড়া উচ্চ বিদ্যালয় দল, রানার্স আপ হয় মারুফ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সব শেষে অতিথিরা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। পুরস্কার হিসেবে দেয়া হয় মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক ও বঙ্গবন্ধুর জীবনী ভিত্তিক বই।