বুধবার, ১৩ অক্টোবর ২০২১, ২৮ আশ্বিন ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

প্রবাসীর স্ত্রী নাজমা ও প্রেমিক মোশাররফকে খুঁজছে তাদের পরিবার : পুরস্কার ঘোষনা


নিজস্ব প্রতিনিধি :: মীরসরাই উপজেলার বারইয়াহাট পৌর বাজারের জনৈক ব্যবসায়ী মোশাররফ হোসেন এক প্রবাসীর স্ত্রী সহ গত ৩ সপ্তাহ ধরে উধাও। এই ঘটনায় দুই থানায় পৃথক অভিযোগ এন্ট্রি হয়েছে । তবে এখনো তাদের খুঁজে না পাওয়ায় নিরুদ্বেশ হওয়া স্ত্রীকে পেতে প্রবাসী স্ত্রী ও মোশাররফের সন্ধানদাতাকে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষনা করেছে।
মীরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ ও পাশ্ববর্তি ফেনী থানায় এন্ট্রি করা জিডি সূত্রে জানা গেছে ফেনীর ফরহাদ নগর গ্রামের ভোরবাজারের পাশ্ববর্তি সৌদি প্রবাসী শহিদ উল্লাহ এর স্ত্রী নাজমা বেগম ( ৩৬)। ইতিপূর্বে  তিন স্বামীর ঘর ভেঙ্গে আসলে ও অনেকদিনের পছন্দ বলেই  চৌদ্দ বছরের একটি পুত্র সন্তান সহ বিয়ে করেন সৌদি প্রবাসী শহিদ উল্লাহ। কিন্তু বছর না যেতেই একই গ্রামের এক কন্যা সন্তানের জনক মোশাররফ হোসেন ( ৩৫) এর সাথে পালিয়ে যায় নাজমা বেগম। প্রেমিক মোশাররফ হোসেনের স্ত্রী জানান স্বামী মীরসরাই উপজেলার বারইয়াহাটের হার্ডওয়ার দোকানদারি করতো । বাবার দেয়া ব্যবসার পুঁজি ও ভাইদের থেকে ধার করা অন্তঃত ৫০ লক্ষ টাকা আবার পাশের গ্রামের নাজমা ও তার প্রবাসী স্বামীর ২০ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা সহ অর্ধ কোটি টাকা সহ দুজনে কোটি টাকা সরিয়ে পালিয়ে গেছে। নাজমার প্রবাসীর স্বামী  শহিদ উল্লাহ জানান আমার স্ত্রীকে সৌদি আরব এনে ওমরাহ হজ্ব করিয়ে কোরআন শপথ করিয়েছিলাম কোনদিন আমাকে ছেড়ে আবার পালাবে না বলে।  কিন্তু নিষ্ঠুর এই মহিলা আমাকে ছেড়ে গেলে ও এখনো ফিরে এলে আমি তাকে গ্রহন করবো। তিনি বলেন আমার স্ত্রী ও প্রেমিক মোশাররফকে ফিরিয়ে দিতে পারলে বা  সন্ধান দিতে পারলে আমি তাকে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার প্রদান করবো।  সন্ধানদাতাকে ০১৬১৭-৬১২২৩৮ নাম্বারে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।

আবার প্রেমিক মোশাররফ এর স্ত্রী বলেন আমাদের চার বছরের কন্যা প্রতিদিন বাবার জন্য কাঁদছে।  সন্তানের কান্না আর আর্তনাদ এর দিকে তাকিয়ে আমি আমার স্বামীকে ফিরে পেতে চাই। । এই বিষয়ে জোরারগঞ্জ থানার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শরিফুজ্বামান বলেন বিষয়টি অত্যন্ত মানবিক রুপ ধারন করেছে। আমরা ও দুজনকেই সন্ধানের চেষ্টা করছি। আবার যে কেউ আমাদের কাছে তাদের খোঁজ দিতে পারলে আমরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করবো।