সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষাকে গানের সুরে ছড়িয়ে দিতে চান সুরকার ও গীতিকবি আহসান আরিফ


নিজস্ব প্রতিনিধি ::
‘”আধা রাইতুত আঁজি যাইগো তোঁয়াই ন পাই মন, তোঁয়ার লাই বুলি বুক ফাডি যার ও পরানর ধন’” আহা কি গানের ছন্দ। কি রসালো কথায় বউকে কাছে ডাকার আহবান, সত্যিই মন কেড়ে নেবার মতোই। বলছি আহসান আরিফ এর দুবাই ওয়ালার বউ ’ শিরোনামের গানটির কথা। গীতিকবি আহসান আরিফ এর সুর ও কন্ঠে ছোট্ট গানটি ইউটিউব থেকে ফেসবুকে বেশ সুনাম কুড়াতে দেখা গেছে। টিক টকে যা ব্যাপকভাবে আলোচিত। প্রবাসি এই গীতিকবি ও সুরকার ইতিমধ্যে নিজের লেখা ও সুরে প্রেমর আলাপ’ শিরোনামে গানটি দিয়ে ও আলোচনায় এসেছিলেন। সঙ্গীত জগতে আলোড়ন সৃষ্টি করেছিলেন তারই লিখা কায়সার হামিদের কন্ঠে “অ ভাবী ভাবীরে মনত ন মানের আর বিয়ে গরাই দনা” গানটি দিয়ে। তিনি ২০০৪ থেকে গান লিখলেও গীতিকবি হিসাবে সবার কাছে পরিচিতি পান “অ ভাবী ” শিরোনামের গানটি দিয়ে। তার পর থেকে তাকে পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি আর। একের পর এক গান লিখার আহবান আসে। তার উল্লেখ যগ্য গান গুলি মধ্যে “আইঁ তো দুবাই ওয়ালা” “ওরে ননাই” “মনে খাজা প্রাণে খাজা” তাহার প্রায় সব গানই ইবটিউব থেকে ফেসবুক জুড়ে এবং শ্রোতাদের মনে নাড়া দিয়েছে। সর্বশেষ দুবাইওয়ালার বউ শিরোনামের গানটি শ্রোতাদের বিমোহিত করে । চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষার সম্ভাবনাময় শিল্পী ও সুরকার হিসেবে নিজেকে স্থান করে নিচ্ছেন ধীরে ধীরে। এই শিল্পীকে নিয়ে মন্থব্য করতে গিয়ে চট্টগ্রামের আরেক বেতার ও টেলিভিশন গীতিকবি শাখাওয়াত উল্লাহ রিপন বলেন এমন প্রতিভাবান তরুনরা আগামীদিনে চট্টগ্রামের ভাষাকে কেন্দ্র করে সুরের জগতে কাজ করলে অবশ্যই আমরা সৃজনশীলতায় সুখ্যাতি অর্জন করবো।
ইতিমধ্যে এই গীতিকবি মীরসরাইয়ে খবরিকা ও যুগান্তর স্বজনের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত ৪র্থ আন্তর্জাতিক কবি সমাবেশ ২০২২ইং এর অনুষ্ঠানে সম্ভাবনাময় গীতিকবি হিসেবে চট্টগ্রামের নাট্যজন ও দৈনিক আজাদীর ফিচার এডিটর প্রদীপ দেওয়ানজী থেকে পুরস্কার গ্রহন করেন। তাঁর লিখা আঞ্চলিকগানগুলো সিপ্লাস থেকে প্রচারিত হয়ে থাকে। সর্বশেষ সিপ্লাস টিভির মাধ্যমে দর্শকদের মনে ঝড় তুলেছি “দুবাই ওয়ালার বউ” শিরোনামের গানটি। নিজের কথা নিজের সুরে নিজেই কন্ঠ দিয়েছেন তিনি। গানটির মিউজিক করেছে সময়ের জনপ্রিয় কন্ঠ শিল্পী মিউজিক ডিরেক্টর শাহীন রানা।

ইতি মধ্যে কাজ চলছে আহসান আরিফ এর কথাও সুরে ডিরেক্টর মুস্তাফিজুর রহমানের নির্দেশনায় শিল্পী পারভেজ আর ছমিরার কন্ঠে “পাশর বাড়ির পোয়া” “ননাইয়া বউ” “রসর তালত ভাই” ও চাটগাঁ শহর” শান্তা ভৌমিকের কন্ঠে প্রচারিত হবে “দুবাই ওয়ালা জামাই” “রাইক্কুম তোরে নজরত” এবং আরো একটি রোমান্টিক গান তার কথায় কাযসার হামিদের সুরে মুক্তির অপেক্ষায় “হৃদয়ের সাম্পান। গানটিতে কন্ঠ দিয়েছেন সময়ের জনপ্রিয় কন্ঠ শিল্পী শাহীন রানা এবং ফারাবি। গীতিকবি, সুরকার ও শিল্পী আহসান আরিফের কাছে জানতে চাইলাম তার পছন্দের খারা কী? উত্তরে জানালেন পছন্দের বলতে কিছু নাই। সবই তিনি খান। খুবই অল্প পরিমানে। বিরানী, কালাভুনা চিকেন খেতে ভালোবাসেন। তবে ফলের জুস ও মিষ্টি তার বিষণ প্রিয়। প্রিয় ফুল বেলী। প্রিয় রং নীল। বৃষ্টির শব্দ তার খুব পছন্দের। তিনি খুবই ভ্রমন প্রিয়সী। ঝর্না, সাগর, পাহাড়ে লাফিয়ে বেড়াতে ভালবাসেন।
তাহার পরিবার সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি গর্ব করে বললেন আমি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। বাবার নাম ডাক্তার ফরিদ আহম্মদ। মাতা ফিরোজা বেগম। চার ভাই তিন বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট। তিনি ২০১৬ সালের ১৪ই ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসে
পরিবারের পছন্দ মতো বিয়ে করেছিলেন ফারজানা আরিফ কে। তাদের সংসারে দুই রাজকন্যা আছে। আজমী ও আরিশফা। সুখের সংসারে যেন কারো নজর না লাগে দর্শকদের কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি। ছোট বেলা থেকেই গান লিখতে গাইতে ভালোবাসতেন। তিনি বলেন চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষাকে উপজিব্য রেখে আমি আঞ্চলিক লোক ঐতিহ্য প্রজন্মের কাছে ধরে রাখতে কাজ করে যাচ্ছি। আশা করছি সকলের ভালবাসা পেলে তা সম্ভব।