বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ৫ কার্তিক ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

বাবা-ভাই মিলে করেরহাটে যুবক খুন

ওমর ফারুক ইমন |:map-ctg-mirsarai.thumbnail  বাবা ও ভাইয়ের সাথে ঝগড়ার এক পর্যায়ে মীরসরাইয়ের করেরহাট ইউনিয়নের যুবক ইমন (২৮) কে খুন করার অভিযোগ উঠেছে । নিখোঁজের ৯ দিন পর গতকাল (২০ ডিসেম্বর) মাগরিবের পর তার লাশ উদ্ধার করে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ। অভিযুক্ত বাবা ও ভাইকে আটক করেছে পুলিশ।
গ্রামবাসী থেকে প্রাপ্ত তথ্যে  জানা যায় গত ১২ ডিসেম্বর রাতে কাদের মোল্লার ফাঁসির রাতে চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার করেরহাট ইউনিয়নের পশ্চিম অলিনগর মহাজনগ্রামের সদ্য বিএ পাশ করা যুবক ইমন (২৮) এর সাথে পিতা দেলোয়ার হোসেন ও অপর ভাই নিশান (২৬) এর রাজনৈতিক বিষয় ও কাদের মোল্লার ফাঁসি বিষয়ক তুমুল ঝগড়া হয়। এরপর থেকে ইমন নিখোঁজ হয়। কিন্তু গত ৬ দিন ধরে ইমনের পিতা ও ভাই কেউ তার খোঁজ ও নেয় নি। বরং কেউ জানতে চাইলে দায়সারা ভাবে বলেছে আমাদের ইমন চট্টগ্রাম গেছে বা বেড়াতে গেছে। এদিকে গ্রামের সোনাইছড়ি খালের একটি নির্জন স্থান থেকে গত দুইদিন ধরে পঁচা গন্ধ বেরুতে দেখে অনেকে মনে করেছিল কোন কুকুর বা কিছু একটা মরে আছে। অবশেষে গতকাল এলাকার এক কৃষক সন্ধ্যার প্রাক্কালে ঘরে ফেরার সময় সে অংশের মাটি থেকে পঁচা গন্ধ বের হচ্ছে সেখানে মানুষের হাতের একটি অংশ মাটি সরে উপরে দেখা যাচ্ছে। এরপর গ্রামে খবর দিলে গ্রামবাসি থানায় খবর দেয়। জোরারগঞ্জ থানার ওসি ইফতেখার হাসান এসে ঘটনা পর্যবেন করে আগে পিতা দেলোয়ার হোসেন ও ভাই নিশান কে গ্রেফতার করে এবং লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করে। এই বিষয়ে ওসি ইফতেখার বলেন ঘটনার প্রকৃত রহস্য উৎঘাটনের পর পূর্ণাঙ্গ মন্থব্য করা যাবে। তবে গ্রামবাসীর অনেকেরই ধারনা বাবার রহস্যজনক আচরনে মনে হচ্ছে কোনভাবে বাবা ও ভাইয়ের সাথে ঝগড়ার সময় হয়তো দূর্ঘটনাবশত বা পরিকল্পিত হত্যা হোক এমন কিছু একটা ঘটতে পারে। তবে তুমুল ঝগড়া হয়েছে এটা অনেকেই জানে। আবার অনেকে জানান কাদের মোল্লার ফাঁসি নিয়েই তাদের বিবাদের সূত্রপাত। নিহত ইমন স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় ও শিকতা করতো বলে এলাকাবাসী জানায়।

Leave a Reply