সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়নি

image-3_57843
৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়নি বলে দাবি করেছে নির্বাচন পর্যবেক্ষক সংগঠন ব্রতী।

শুক্রবার রাজধানীতে এক সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন মুরশিদ বলেন,‌ ‘১৪৭টি আসনের মধ্যে ১৬টি আসনের পর্যবেক্ষণ করে সংগঠনটি। নির্বাচন কমিশন নির্বাহী ক্ষমতাবলে একটি সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ নির্বাচন করতে পারে। কিন্তু তারা এটা করতে ব্যর্থ হয়েছে।’ এসময় তিনি আরো বলেন, নির্বাচন কমিশন এবং প্রশাসন ভোটারদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে। এবারের নির্বাচনে পূর্বের নির্বাচনগুলোর চেয়ে কম ভোট পড়েছে।

তিনি বলেন, সকল রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ ছাড়া নির্বাচন সর্বগ্রাহ্য হয় না। নির্বাচন কমিশন তাদের কাজের ক্ষেত্রে স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারেনি। এই নির্বাচন আগের সকল নির্বাচনের চেয়ে অত্যান্ত নিম্নমানের। দেশের নির্বাচনের যে সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল তা এই নির্বাচনের মাধ্যমে ম্লান হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থীরা তেমন কোন গণসংযোগ করেনি। তফসিল ঘোষণার পর থেকে এ পর্যন্ত সহিংসতায় ১৮০ জন মানুষ নিহত হয়েছে। নির্বাচনের দিন ১৫২টি ভোটকেন্দ্রে অগ্নিসংযোগ করে আঠারো দলীয় জোট কর্মীরা। ৩৬টি আসনের ৫শ’৩৯টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত হয়। নির্বাচনে জালভোট ও কারচুপির অভিযোগ পাল্টা অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোকারীদের বেশির ভাগই আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের সাথে যুক্ত। সংগঠনটির পর্যবেক্ষণে ঢাকা শহরের কেন্দ্রগুলোতে ২৬ শতাংশ ও অন্য পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র গুলোতে গড়ে ৩৭ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে দাবী করে।

Leave a Reply