বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

নতুন সরকার হবে অবৈধ: ফখরুল

mirja
বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ১২ জানুয়ারি  যে সরকার গঠিত হবে, তা হবে বাংলাদেশের মানুষের প্রতিনিধিত্বহীন স্বৈরাচারী একনায়কতান্ত্রিক। এই সরকার কোনো দিক থেকেই বৈধ হিসেবে দেশে-বিদেশে বিবেচিত হবে না।শনিবার এক বিবৃতিতে তিনি এ দাবি করেন।
বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল বলেন, এই নির্বাচন অনুষ্ঠান করতে গণতন্ত্র আর একবার আওয়ামী লীগের হাতে নিহত হলো। ৩-৫ শতাংশ ভোটার ভোট দিয়েছে। ১৫৩ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষিত হয়েছে। ৫২ শতাংশ ভোটার তাদের ভোটাধিকারের সাংবিধানিক অধিকার থেকে বঞ্ছিত হয়েছে।নির্বাচন কারও কাছে গ্রহণযোগ্য হয়নি। তিনি বলেন, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩-৫ শতাংশ ভোট পড়েছে।ফখরুল বলেন, ১৪৭টি আসনে ভোটার সংখ্যা ৪ কোটি ৩৬ লক্ষ ৮৬ হাজার ৪১ জন। প্রকৃত ভোট পড়েছে সর্বাধিক ৩-৫%। দেশে ৯৫-৯৭% ভোটার আওয়ামী লীগকে ভোট দেয়নি।সরকারকে পদত্যাগের আহ্বান জানিয়ে বিএনপির এ নেতা বলেন, অবিলম্বে পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের অধীনে সকল দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে এবং সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য একটি অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করাই হবে আওয়ামী লীগের জন্য উত্তম। অন্যথায় জনগণ তাদের ন্যায় সংগত গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে আনবে জনগণের সম্মিলিত আন্দোলনের মধ্য দিয়ে।
নতুন সরকার গঠন প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ১২ জানুয়ারি তারিখে যে সরকার গঠিত হবে তা হবে বাংলাদেশের মানুষের প্রতিনিধিত্বহীন স্বৈরাচারী একনায়কতন্ত্রের একটি সরকার। এই সরকার কোনো দিক থেকেই বৈধ সরকার হিসাবে দেশে-বিদেশে বিবেচিত হবে না। গণতন্ত্রকে হত্যা করে কোনো স্বৈরাচারী একনায়কই জনগণের সমর্থন লাভ করতে সক্ষম হয়নি-আওয়ামী লীগও সক্ষম হবে না।

Leave a Reply