রবিবার, ৯ মে ২০২১, ২৬ বৈশাখ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

কূটনীতিক গ্রেফতারে দিল্লি ওয়াশিংটন বিরোধ চরমে

50937

 

ভারতীয় কূটনীতিক দেবযানী খোবরাগাড়ের গ্রেফতারকে কেন্দ্র করে দিল্লি-ওয়াশিংটন বিরোধ চরমে পৌঁছেছে। দেবযানীকে বিবস্ত্র করে তল্লাশি এবং গ্রেফতারের ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে আমেরিকান কংগ্রেসের এক প্রতিনিধি দলের সঙ্গে প্রস্তাবিত বৈঠকও বাতিল করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে ও কংগ্রেস সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধী। দেবযানীর বিরুদ্ধে জাল ভিসার সাহায্যে সঙ্গীতা রিচার্ড নামে এক ভারতীয় পরিচারিকাকে আমেরিকা নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ তুলেছে আমেরিকান প্রশাসন। গত বৃহস্পতিবার সকালে মেয়েকে স্কুলে দিয়ে যাওয়ার পথে দেবযানীকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে বিবস্ত্র অবস্থায় তল্লাশি করা হয় বলে অভিযোগ করেন দেবযানী। এক কূটনীতিকের এই হেনস্থাকে বর্বরোচিত বলেছেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা শিবশঙ্কর মেনন। যদিও আমেরিকান স্বরাষ্ট্র দফতর শনিবার জানিয়ে দিয়েছে কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে ভিয়েনা চুক্তিতে যা বলা রয়েছে, তার আওতায় দেবযানী পড়েন না। এদিকেভারতে নিযুক্ত সব আমেরিকান কূটনীতিকদের পরিচয়পত্র ফেরত দিতে বলেছে দিল্লি। আমেরিকায় নিযুক্ত ভারতীয় কূটনীতিক দেবযানি খোবরাগাড়েকে গ্রেফতার এবং বিবস্ত্র করে তল্লাশির অভিযোগের পর এই নির্দেশ দিয়েছে নয়া দিল্লি। এরআগে এই ঘটনার প্রতিবাদে ভারত সফররত আমেরিকান কংগ্রেসর প্রতিনিধি দলের সঙ্গে নির্ধারিত বৈঠক বাতিল করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে এবং কংগ্রেস ভাইস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী। ওদিকে, যুক্তরাষ্ট্রে এক ভারতীয় নারী কূটনীতিককে বিবস্ত্র করে তল্লাশি ও গ্রেফতারের ঘটনার জেরে সফররত মার্কিন কংগ্রেসের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক বাতিল করেছেন দেশটির রাজনীতিবিদরা। এ ধরনের ‘অবমাননাকর’ ঘটনায় ভারতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আগামী নির্বাচনে ভারতের বর্তমান বিরোধী দল বিজেপি’র প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী নরেন্দ্র মোদি মার্কিন প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক করতে অস্বীকৃতি জানান। তিনি এক টুইটার বার্তায় বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রে আমাদের নারী কূটনীতিকের সঙ্গে অবমাননাকর আচরণের প্রতিবাদে আমাদের গোটা জাতির সঙ্গে সংহতি জানিয়ে আমি মার্কিন প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক বাতিল করেছি।’ গত বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কে ভারতের কনস্যুলেটের ডেপুটি কনসাল জেনারেল দেবযানী খোবরাগাড়কে বিবস্ত্র করে দেহ তল্লাশির পর হাজতে পাঠানো হয়। দেবযানীর বিরুদ্ধে জাল ভিসার সাহায্যে সঙ্গীতা রিচার্ড নামে এক ভারতীয় পরিচারিকাকে আমেরিকা নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ তুলেছে মার্কিন প্রশাসন। পরে আড়াই লাখ মার্কিন ডলারের বিনিময়ে জামিন পান দেবযানী। একজন উচ্চ পর্যায়ের কূটনীতিককে এ হেনস্থাকে বর্বরোচিত বলেছেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা শিবশঙ্কর মেনন। মার্কিন স্বরাষ্ট্র দফতর অবশ্য শনিবার জানায়, কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে ভিয়েনা চুক্তিতে যা বলা রয়েছে, তার আওতায় দেবযানী পড়বেন না। ভারতের পার্লামেন্টের নিুকক্ষের স্পিকার মীরা কুমারও মার্কিন প্রতিনিধি দলের সঙ্গে অনুষ্ঠেয় সোমবারের বৈঠক বাতিল করেছেন বলে তার কার্যালয় জানায়। পার্লামেন্টের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ইউএস সাক্সেনা বার্তা সংস্থা এএফপি’কে বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আজ স্পিকারের বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। তবে স্পিকারের নির্দেশে এ বৈঠক বাতিল করা হয়েছে।’তিনি বলেন, ‘নিউইয়র্কে আমাদের দেশের কূটনীতিকের সঙ্গে অসদাচরণের কারণে এ বৈঠক বাতিল করা হয়েছে।’
কূটনীতিককে গ্রেফতারের প্রতিবাদে গত সপ্তাহেই ভারতে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ভারত। সে সময় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রের আচরণে ভারত মর্মাহত। তথ্যসূত্র : পিটিআই, টাইমস অব ইন্ডিয়া।
উৎস- যুগান্তর

Leave a Reply