রবিবার, ১ আগস্ট ২০২১, ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

আগামীকাল কমনওয়েলথ দেশগুলোর সম্মেলন শুরু

Summit

শ্রীলঙ্কায় কমনওয়েলথ দেশগুলোর সরকার প্রধানদের সম্মেলন শুরু হচ্ছে কাল। এবারের সম্মেলনে তামিল ইস্যুতে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে অংশ নিচ্ছে না কানাডা ও ভারতের সরকার প্রধান। তবে এ ইস্যুতে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ রয়েছে, তা নিয়ে আন্তর্জাতিক তদন্তের চাপ দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন।৫৩ সদস্যরাষ্ট্রের সংগঠন কমনওয়েলথের সম্মেলনে যোগ দিতে এরইমধ্যে কলম্বোয় পৌছেছেন সদস্য রাষ্ট্রের পরররাষ্ট্র মন্ত্রীরা। সম্মেলনের আলোচ্য সূচি নিয়ে এরই মধ্যে দুবার বৈঠক করেছেন তারা ।শীর্ষ সম্মেলন শুরু হচ্ছে শুক্রবার। যেখানে সরকারপ্রধানরা অংশ নেবেন।শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত এবারের সম্মেলনে খুব জোরে শোরেই আলোচিত হচ্ছে তামিল ইস্যুটি। উনিশশো আশি সাল থেকে তামিল অধ্যুষিত এলাকাগুলো নিয়ে স্বাধীন রাষ্ট্রের দাবির আন্দোলন রুপ নেয় সিংহলি-তামিল জাতিগত সংঘাত। তারপর তিন দশক এক রক্তক্ষয়ী গৃহযুদ্ধে প্রাণ হারায় আশি হাজারেরও বেশি মানুষ।২০০৯ সালের উনিশে মে তামিল টাইগার নেতা ভেলুপিল্লাই প্রভাকরণের মৃত্যুর পর থামে এই গৃহযুদ্ধ।সেই সময়ে মানবাধিকার লংঘনের অভিযোগ অনেকদিন ধরেই করে আসছে মানবাধিকার সংগঠন গুলো।এবার সেনাবাহিনীর ভূমিকা এবং তামিল ইস্যুতে কমনওয়েলথের দেশগুলোও মানবাধিকার লংঘনের অভিযোগ আনছেন।মানবাধিকার কর্মী ব্র্যাড এডামস বলেন, যেখানে দশ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে। এবং এর কোনো বিচার হয়নি,কোনো তদন্ত হয়নি,তাহলে সেখানে এ ধরণের একটা সম্মেলন হবে। বরং মানবাধিকার লংঘনের বিচার চাইতে পারে শ্রীলঙ্কা সরকারের কাছে।কলম্বো সম্মেলনে যোগ দেওয়ার কথা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন জানালেও শ্রীলঙ্কায় যুদ্ধাপরাধ সংঘটিত হয়েছে বলে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ রয়েছে,সে ব্যাপারে আন্তর্জাতিক তদন্তের জন্য চাপ দেওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি।তবে ২০০৯ সালে সংঘটিত যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ নিয়ে কোনো প্রশ্ন না তুলতে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনকে হুঁশিয়ার করেছে শ্রীলঙ্কা সরকার। শ্রীলঙ্কা সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ নিয়ে কোনো প্রশ্ন তোলার অধিকার ক্যামেরনের নেই।শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাহিন্দ রাজাপাকশে বলেন, শ্রীলঙ্কায় শান্তি স্থাপনে আমরা বদ্ধপরিকর।কোনো ধরণের জাতিগত সংঘাতকে আমরা প্রশ্রয় দেবো না। কমনওয়েলথ সম্মেলেন এ নিয়ে আমরা কোনো ধরণের আলোচনা করবো না।
তামিল ইস্যুতে মানবাধিকারের অভিযোগ এনে  সম্মেলেনে অংশ নিচ্ছেন না ভারত, কানাডা এবং মরিশাসের সরকার প্রধান।

উৎস- ইন্ডিপেনডেন্ট

Leave a Reply