মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

স্বাধীনতাকে অস্বীকার করছেন জয়: ফখরুল

fakrul_43622_174486
বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জিয়াউর রহমানকে অস্বীকার করলে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বাংলাদেশের গণতন্ত্র ও স্বাধীনতাকে অস্বীকার করবে। শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।‘শহীদ জিয়া ও গণতন্ত্র’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ। আয়োজক সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুহুল আমীন গাজীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, বিশিষ্ট চলচিত্রকার চাষী নজরুল ইসলাম, শিক্ষক কর্মচারি ঐক্য জোটের সভাপতি অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া প্রমুখ।
জিয়াউর রহমানকে নিয়ে ‘কটূক্তি’ করায় সজীব ওয়াজেদ জয়কে ‘অর্বাচীন বালক’ অভিহিত করে ফখরুল বলেন, একটি শিশু বলে কিনা স্বৈরাচার, বিএনপির জন্ম স্বৈরাচারে। নতুন প্রজন্মের নতুন নেতা জয় সাহেব মুক্তিযুদ্ধের সময় পাক আর্মির তত্ত্বাবধানে জন্ম। যিনি ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রে বেশিরভাগ সময় কাটিয়েছেন। আর তিনি (জয়) বলেন- জিয়াউর রহমানের নাম মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে মুছে দিতে হবে। জিয়াউর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করলে ইতিহাস অস্বীকার করা হবে। এসময় জয়কে অর্বাচীন বালকের মত কথা বলা বন্ধ করার আহ্বান জানান।জয়কে উদ্দেশ্য করে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আরো বলেন, শহীদ জিয়ার নাম মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে রাখা যাবে। এই কথা বলে তুমি প্রমাণ করে দিয়েছো, তোমার বয়স কম, তুমি ছোট এবং তুমি একজন অর্বাচীন বালকের মত কথা বলেছো। তাই আগে ইতিহাস পড়ো তারপর কথা বলো।প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের বক্তব্য উল্লেখ করে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বলেন, ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের আওয়ামী লীগের নীলনকশা তিনি ফাঁস করে দিয়েছেন। তাই তাকে আমি আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই। ছাত্রলীগ সম্পর্কে এইচ টি ইমামের বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, ঢাকার শহরসহ সারাদেশের আজ চলছে ছাত্রলীগের চাঁদাবাজি। জায়গা দখলসহ মানুষের উপর নির্যাতনে ছাত্রলীগের নজির দেখার মতো।