মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

লতিফ সিদ্দিকী গ্রেফতার না হলে ২৬ অক্টোবর হরতাল

kk90b2gr-e1412001708595_34282

 

আগামী ১৫ অক্টোবরের মধ্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে গ্রেফতার না করা হলে ২৬ অক্টোবর হরতাল পালন করবে সম্মিলিত ইসলামী দলগুলো। এছাড়া তার গ্রেফতার দাবিতে আগামী শুক্রবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচিও পালন করবে দলগুলো।

আজ বুধবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রাখেন সম্মিলিত ইসলামী দল সমূহের মহাসচিব মাওলানা মুহাম্মদ জাফরুল্লাহ খান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাওলানা মহিউদ্দীন, আহমুদুল্লাহ কাশেমী, আরিফ বিল্লাহ, মুফতি ফকরুল ইসলাম প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে মাওলানা জাফরুল্লাহ খান বলেন, লতিফ সিদ্দিকী ইসলাম বিরোধী এই বক্তব্য দিয়ে কুখ্যাত মুরতাদ সালমান রুশদি ও তসলিমা নাসরিনকেও হার মানিয়েছে।

তিনি বলেন, এই সরকার জনগণকে ধোকা দিয়ে মন্ত্রিপরিষদ থেকে সিদ্দিকীকে অপসারণ করেছে মাত্র। দেশবাসী জানে এটা চালাকির রাজনীতি। ইসলাম সম্পর্কে তার এই কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের দায়ে অবিলম্বে তাকে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার এবং এই বিষয়ে আইন প্রণয়ন করার দাবি জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, সরকার ১৫ অক্টোবরের মধ্যে লতিফ সিদ্দিকিকে গ্রেফতার না করলে ২৬ অক্টোবর হরতাল ঘোষণা করা হলো। এছাড়াও আগামী শুক্রবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচিও ঘোষণা করা হচ্ছে। পাশাপাশি হেফাজত ইসলামের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবারের বিক্ষোভ কর্মসূচির প্রতি সমর্থন করা হয় বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুল লতিফ সিদ্দিকী গত রবিবার নিউইয়র্কে টাঙ্গাইল সমিতির এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নিজেকে হজের বিরোধী বলে পরিচয় দেন। এসময় তিনি বলেন, ‘হজে জনশক্তি নষ্ট হয়। হজের জন্য ২০ লাখ লোক সৌদি আরবে গেছেন। এদের কোনো কাজ নাই। কোনো প্রোডাকশন নাই। শুধু খাচ্ছে আর দেশের টাকা বিদেশে দিয়ে আসছে।’ পরে তার এই বক্তব্য দেওয়া ভিডিওটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়লে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠে।