রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

রেলমন্ত্রীর বৌভাতে এলাহীকাণ্ড!

image_151025.minister_mazibul+hoque_reception_141114_0021

 

প্রায় ২০ হাজার অতিথি আপ্যায়নের ব্যবস্থা। সাধারণ, ভিআইপি ও ভিভিআইপি শ্রেণিতে অতিথিদের ভাগ করে রয়েছে খাবারের আয়োজন। ভিআইপিদের জন্য এলডি হলের ভেতরে দুটি স্থানে ২০টি টেবিল রাখা হয়েছে। উপহার নিতে ছয়টি কাউন্টার। ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা। এ এক এলাহী কাণ্ড!রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক ও হনুফা আক্তার রিক্তার বিবাহোত্তর বৌভাত উপলক্ষে সংসদ ভবনের এলডি হল এলাকায় বিশাল আয়োজন করা হয়েছে। মনিপুরীপাড়া ফটক থেকে এলডি হল পর্যন্ত করা হয়েছে আলোক সজ্জা। অতিথিদের অভ্যর্থনা জানাতে কালো রংয়ের স্যুট পরিহিত ৬৭ বছর বয়সী মন্ত্রীকে সন্ধ্যায় মূল ফটকের পাশেই দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। অনুষ্ঠানস্থলে ঢুকতে ফটক থেকে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় অতিথিদের। সারি ধরে একের পর এক ভিতরে প্রবেশ করেন তারা।ঘিয়ে রংয়ের সোনালী জরির শাড়ি, সিতাহার, কণ্ঠহার, টিকলি পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত হন বৌ হনুফা আক্তার রিক্তা। মঞ্চে ওঠার পর তাকে ঘিরে ছবি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন আগ্রহীরা।
অতিথিদের আপ্যায়নের দায়িত্বে থাকা আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কাযনির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি আবুল হোসেন জানিয়েছেন, কেউ যেন না খেয়ে না যান সেজন্য প্রচুর খাবারের আয়োজন করা হয়েছে। আমন্ত্রিতদের বাইরে আরো পাঁচ হাজার মানুষের জন্য খাবার রাখা হয়েছে।
আয়োজকরা জানান, প্রায় ২০ হাজার অতিথি আপ্যায়নের ব্যবস্থা করেছেন তারা। এলডি হলের পাশে একসঙ্গে আড়াই হাজার লোকের খাবার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ভিআইপিদের জন্য এলডি হলের ভেতরে দুটি স্থানে ২০টি টেবিল রাখা হয়েছে। খাবার মেন্যুতে রয়েছে কাচ্চি বিরিয়ানি, মুরগীর রোস্ট ও কোমল পাণীয়। সন্ধ্যা ৭টা থেকে শুরু হয়েছে খাওয়া-দাওয়া।খাবারের মধ্যেও রয়েছে তিন ধরনের ব্যবস্থা; সাধারণ, ভিআইপি ও ভিভিআইপি শ্রেণিতে অতিথিদের ভাগ করে রয়েছে খাবারের আয়োজন।বিবাহোত্তর সংবর্ধনায় উপহার গ্রহণ করতে অনুষ্ঠানস্থলের পাশে প্যান্ডেল করে ৬টি কাউন্টার বসানো হয়েছে।বিয়ের অনুষ্ঠানে শতাধিক বরযাত্রীর মূল্যবান জিনিসপত্র খোয়া যাওয়ায় এবারএ ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুরো অনুষ্ঠানস্থল ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার (সিসিটিভির) আওতায় আনা হয়েছে।