রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

যে কোন হুমকি মোকাবিলায় সশস্ত্র বাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

26162_b3

সংবিধানকে রক্ষা ও গণতান্ত্রিক ধারাকে সুসংহত করার জন্য সশস্ত্র বাহিনীকে যে কোন হুমকি মোকাবিলায় সর্বদা সজাগ ও প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে পেশাগত দক্ষতা, যোগ্যতা ও মেধার ভিত্তিতে সেনাবাহিনীতে পদোন্নতি দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। এ বিষয়ে তিনি বলেন, পদোন্নতির ক্ষেত্রে কর্মকর্তাদের নেতৃত্বসুলভ গুণাবলী, জ্যেষ্ঠতা, মুত্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস, সততা, শৃঙ্খলা, দৃষ্টিভঙ্গি ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজ করার সামর্থ্যের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে।
প্রধানমন্ত্রী গতকাল ঢাকা সেনানিবাসের সেনাসদরে আর্মি হেডকোয়াটার্স সিলেকশন বোর্ড-২০১৪ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এ নির্দেশনা দেন। প্রধানমন্ত্রী এ ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত পছন্দ ও অপছন্দের ঊর্ধ্বে উঠে যোগ্য সেনা কর্মকর্তাদের পদন্নোতি দেয়ার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল ইকবাল করিম ভূঁইয়া। অন্যান্যের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) তারিক আহমেদ সিদ্দিকী, মুখ্য সচিব আবদুস সোবহান সিকদার ও সেনাবাহিনীর পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে সশস্ত্র বাহিনীসহ দেশের উন্নয়নে সরকারের প্রচেষ্টার কথা তুলে ধরেন। সামপ্রতিক জাপান সফরের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, জাপান সরকার বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। জাপানের এ আর্থিক সহায়তা বেশ কয়েকটি বড় প্রকল্পে, যেমন- শহর শাসন প্রকল্প, হাওর বন্যা ব্যবস্থাপনা ও জীবিকা উন্নয়ন প্রকল্প, প্রাকৃতিক গ্যাস দক্ষতা প্রকল্প, ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের ‘কৃষি উৎপাদনশীল উন্নয়ন ও বৈচিত্র্যময় অর্থায়ন প্রকল্প’ বাস্তবায়নে ব্যবহার করা হবে। তিনি বলেন, জাপান এছাড়া কক্সবাজার জেলার মহেশখালীর মাতারবাড়িতে ১৩০০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনেও সম্মত হয়েছে। অনুষ্ঠানে সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।