শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

মীরসরাইতে অবৈধ পত্রিকার বিরুদ্ধে কর্মসূচিতে যাচ্ছে এডিটরস ফোরাম

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : মীরসরাই উপজেলা থেকে প্রকাশিত কিছু অনুমোদন বিহীন পত্রিকার বিরুদ্ধে শীঘ্রই কর্মসূচি প্রদান করবে ‘মীরসরাই এডিটরস ফোরাম’। এডিটরস ফোরামের আহ্বায়ক মাসিক মীরসরাই পত্রিকার সম্পাদক মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন এক বিবৃতিতে জানান সম্প্রতি মীরসরাই উপজেলা থেকে ডিকারেশান বিহীন পত্রিকা প্রকাশিত হবার প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। যা সরকারি নীতিমালা অনুসরনকারী বৈধ, পেশাদার ও অনুমোদিত পত্রিকা গুলোর জন্য হুমকী হয়ে দাঁড়িয়েছে।
প্রেস এন্ড পাবলিকেশন্স আইন অনুযায়ী জেলা প্রশাসকের ডিকারেশান প্রাপ্তির পূর্বে (অভ্যন্তরীন ডামী সংখ্যা ব্যতীত) কোন প্রকার পত্রিকা প্রকাশনা বাজারে ছাড়ার আইনগত বিধি নেই। কিন্তু কিছু অতি উৎসাহি অসাধু ব্যক্তি pen_1এই সম্মানিত পেশাকে হেয় প্রতিপন্ন করে সরকারি নীতিমালা লঙ্ঘন করে পত্রিকা প্রকাশ করছে। যাহা সাংবাদিক সমাজকে কলুষিত করার প্রচেষ্টাই মাত্র।
উল্লেখ্য যে, ইতিমধ্যে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মীরসরাই উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মীরসরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফ হোসেন ও ওসি ইমতিয়াজ এম কে ভূঞাকে প্রসঙ্গত উপজেলার বিভিন্ন ডিকারেশান বিহীন পত্রিকা যেন প্রকাশ না তা দেখার জন্য বলে গেছেন। কিন্তু এর পর ও সবাইকে বৃদ্ধাঙ্গুলী প্রদর্শন করে বাংলাদেশের প্রচলিত আইন ও বিধি নিয়ম লংঘন করে অনেকে ডিকারেশান বিহীন পত্রিকা প্রকাশ করছে। যা আইনের পরিপস্থি। এইসব আইন লংঘনকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়ে মীরসরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ওসি এর কাছে শীঘ্রই স্মারকলিপি প্রদান করবে মীরসরাই এডিটরস ফোরাম।
উক্ত এডিটরস ফোরামে আহব্বায়ক নিজাম উদ্দিনের সাথে রয়েছেন সদস্য খবরিকা সম্পাদক মাহবুবুর রহমান পলাশ, মীরসরাই কন্ঠ সম্পাদক এম সামছুদ্দিন, চলমান মিরসরাই সম্পাদক মনজুরুল হক। এছাড়া রয়েছেন মাসিক মীরসরাই নির্বাহী সম্পাদক এনায়েত হোসেন মিঠু, চলমান মিরসরাই নির্বাহী সম্পাদক শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, খবরিকা নির্বাহী সম্পাদক রাজিব মজুমদার, ও মীরসরাই কন্ঠ নির্বাহী সম্পাদক রিগান উদ্দিন।
সকলে এই বিষয়ে ঐক্যমতে আরো বিবৃতি প্রদান করে বলেন যে, প্রয়োজনে এডিরস ফোরাম এসব অবৈধ পত্রিকা প্রকাশকনার বিরুদ্ধে পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন কঠোর কর্মসূচি ও প্রদান করবে।