বৃহস্পতিবার, ২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

মির্জা ফখরুলকে ফোন দিয়েছেন সৈয়দ আশরাফুল

বিশেষ প্রতিনিধি :

a-m

নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থা নিয়ে সংলাপে বসতে এবার বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ফোন দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। ২১ নভেম্বর সশস্ত্র বাহিনী দিবসে সেনাকুঞ্জে মহাসচিব পর্যায়ে সংলাপে বসতে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বানের পর রাতে মির্জা ফখরুলকে ফোন দেন আশরাফ।

জানা গেছে, সৈয়দ আশরাফ ফোন দিয়ে ফখরুলকে সংলাপে বসার আহ্বান জানান। জবাবে ফখরুল বলেন, সংলাপে বসতে হলে তফসিল ঘোষণা করা যাবে না। কিন্তু তাতে রাজি হননি আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, তফসিল ঘোষণা হলে সমস্যা কী? সংলাপ হতে তো সমস্যা নেই।

এ ব্যাপারে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি তা অস্বীকার করেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, তার সঙ্গে সৈয়দ আশরাফের যোগাযোগ হয়নি।

তবে তফসিল ঘোষণা হলে বিএনপি সংলাপে বসবে না বলে জানা গেছে। বিএনপি নেতারা বলছেন, যখনই বিএনপি আন্দোলনে যাওয়ার পরিকল্পনা নেয়, তখন সরকার সংলাপের আমন্ত্রণ জানায়। এবারও তা-ই করছে। আসলে সঙ্কট নিরসনে সরকারের কোনো আন্তরিকতা নেই।

এর আগে গত ১৫ নভেম্বর মির্জা ফখরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ১০ নভেম্বর তার সঙ্গে সৈয়দ আশরাফের কথা হয়েছে। তিনি আশরাফকে সংলাপে বসার আহ্বান জানান। এরপর থেকে আশরাফ তার ফোন রিসিভ করছেন না।

ওই রাতে সৈয়দ আশরাফ বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, ফখরুলের কোনো কল তার মোবাইলে আসেনি।

এদিকে একটি সূত্র জানিয়েছে, আওয়ামী লীগের কয়েক নেতা, যারা সরকারের মন্ত্রীও, এমন কয়েকজন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাত্ করার আগ্রহ জানিয়ে সময় চেয়েছেন। তবে বিষয়টির সত্যতা মেলেনি।

জানা গেছে, আওয়ামী লীগের কোনো নেতা সময় চাইলেও তাদের সাক্ষাতের সময় দেবেন না খালেদা জিয়া। বিএনপিপ্রধান চান, আগে দুই দলের মহাসচিব পর্যায়ে বৈঠক হোক। সেখান থেকে সমঝোতার কাছাকাছি পৌঁছালে দুই দলের মধ্যে আনুষ্ঠানিক বৈঠকে হতে পারে।

একটি সূত্র জানিয়েছে, যা-ই হোক আজ-কালের মধ্যে সৈয়দ আশরাফ ও মির্জা ফখরুলের মধ্যে অনানুষ্ঠানিক বৈঠক হতে পারে। ওই বৈঠকে তাদের মধ্যে ‘মতের মিল’ হলে আনুষ্ঠানিক বৈঠকে বসতে পারেন তারা

Leave a Reply