বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

মালয়েশিয়াগামী ট্রলারে পাচারকারীদের হামলায় নিহত ৫

45678_sagor jahaj_110445

সেন্টমার্টিনের অদূরে বঙ্গোপসাগরে মালয়েশিয়াগামী ট্রলারে মানব পাচারকারীদের হামলায় পাঁচজন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- বগুড়ার সাইফুল ইসলাম, যশোরের রুবেল, সেলিম, সিরাজগঞ্জ এর মনির হোসেন ও মোঃ ইসলাম।
এ ঘটনায় ৪০ জন গুলিবিদ্ধসহ অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টার দিকে সেন্টমার্টিনের অদূরে বঙ্গোপসাগরে হতাহতের এ ঘটনা ঘটে।খবর পেয়ে কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনী সাগরে অভিযান চালিয়ে ট্রলারটি উদ্ধার করে সন্ধা ৬টায় সেন্টমার্টিনে নিয়ে আসে।
কোস্টগার্ড টেকনাফ স্টেশন কমান্ডার লে. কাজী হারুনুর রশিদ এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ট্রলারে প্রায় ৩০০ যাত্রী ছিল। এছাড়া ট্রলার থেকে থাইল্যান্ড এর নাগরিক দুই ক্রুকে আটক করা হয়েছে। তারা হচ্ছেন- চেং ও মং।এদিকে কোস্টগার্ড জানিয়েছে আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।জানা গেছে, মালয়েশিয়াগামী ট্রলারটি প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করে যাত্রী সংগ্রহ করতে থাকে। এভাবে ট্রলারটিতে ৩০০ যাত্রী তোলা হয়। ট্রলারটি মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা না করে দীর্ঘদিন সাগরে অবস্থান করতে থাকায় যাত্রীদের মধ্যে খাবার নিয়ে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে বুধবার সকালে ট্রলারের ক্রুদের সাথে যাত্রীদের সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এসময় ট্রলারের ক্রু ও দালালরা অন্যান্য মানব পাচারকারীদের সংঘর্ষের খবর পাঠালে আশে পাশে থাকা মানবপাচারকারীরা কয়েকটি ট্রলারে এসে আটক ট্রলারটিতে গুলিবর্ষণ করতে থাকে। এতে হতাহতের এ ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে একজনের নাম মিঠু। তার বাড়ি নরসিংদীতে।কামাল নামে এক দালালের হাত ধেরে মালশিয়ায় পাড়ি জমায় মিঠু। শেষ পর্যন্ত লাশ হতে হয়েছে তাকে।
এদিকে ট্রলারের ১২ যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে বলে যাত্রীরা জানিয়েছে। নিখোঁজ এসব যাত্রীদের মানব পাচারকারীরা সাগরে ফেলে দেয় বলে ট্রলার যাত্রীরা জানায়।