শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

বাংলাদেশে র্শীষ আলোচিত সব ফাঁসি

বাংলাদেশে র্শীষ আলোচিত সব ফাঁসি
এ.এস.রিপন:
১,রীমা হত্যার সেই মনির ২,এরশাদ শিকদার ৩,সালেহা হত্যাকারী ড়া.ইকবাল ৪,শায়খ রহমান ও বাংলা ভাই ৫,বঙ্গবন্ধুর সপরিবার কে হত্যার ৫ খুনির ফাঁসি ৬,কাদের মোল্লা…

অপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড।আর এমন পরিণতি সব সময়ই আলোচনার জন্ম দেয়।তবে সব মৃত্যুদন্ড এত বেশি আলোচিত হয় না।কোনো কোনো ঘটনা রীতিমতো আলোচনার ঝড় তোলে।ওইসব মৃত্যুদন্ডের পেছনে থেকে যায় বহু স্মৃতি-বিস্মৃতির নানা ইতিহাস।সম্পতি ১৯৭১ সালে যুদ্ধপরাধের দায়ে কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকরের আগে আলোচিত ছিল বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার আসামিদের ফাঁসি কার্যকরের ঘটনা।এর আগে সবচেয়ে আলোচিত ছিল র্শীষ ছয় জঙ্গি নেতার ফাঁসি।বাংলাদেশের ইতিহাসে এরকমই আলোচিত ফাঁসির সব ঘটনা রয়েছে।

রীমা হত্যার সেই মনিরঃ
১৯৮৯ সালের ৯ ই এপ্রিল স্ত্রী শারমিন রীমি কে হত্যা করেন মনির হোসেন।ঘটনার পরদিন তিনি গ্রেফতার হন।১৯৯০ সালের ২১ মে ঢাকার দায়রা আদালত তাকে মৃত্যুদন্ড দেন।দীর্ঘদিন মামলা চলার পরে নিম্ন আদালতে মনির হোসেন এবং হত্যাকান্ডে প্ররোচনাদানকারী তার প্রেমিকা হোসনে আরা খুকু দুজনের ফাঁসির রায় হলে ও উচ্চ আদালতের আপিল বিভাগের রায়ে খুকুকে খালাস দেয় আর মনিরের ফাঁসির রায় বহাল রাখে।

এরশাদ শিকদারঃ
বাংলাদেশের অপরাধীদের মধ্যে সবচেয়ে কুখ্যাত নামটি হলো এরশাদ শিকদার।ভয়াবহতার দিক থেকে এরশাদ শিকদার সবাইকে ছাড়িয়ে গিয়েছিল তার বিরুদ্ধে একাদিক হত্যা,চাঁদাবাজি ও ধর্ষণ মামলা হয় ১৯৯৯ সালে গ্রেফতারের পর খুলনার একটি আদাল তাকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেন এবং পরে ২০০৪ সালের ১০ই মে ফাঁসি কার্যকর করা হয়।

সালেহা হত্যাকারী ড়া.ইকবাল:
বাংলাদেশের ইতিহাসে আরেকটি আলোচিত ফাঁসির ঘটনা হচ্ছে ডা.ইকবালের ফাঁসি।১৯৮৭ সালে গৃহপরিচারিকার সঙ্গে পরকীয়ার জের ধরে স্ত্রী সালেহা হত্যার দায়ে ডা.ইকবালের ফাঁসি হয়েছিল।তারপর ওই রকম করে আর সামাজিক সোচ্চারের ঘটনা খুব একটা দেখা যায়িিন।এখনো অনেক পরিবারেই এ ধরনের ঘটনা ঘটছে।অনেককেই হতে হচ্ছে প্রতিবাদের বলি।

শায়খ রহমান ও বাংলা ভাইঃ
শায়খ রহমান ও বাংলা ভাই ১৯৯৮ সালে জেএমবি নামে সংগঠন এর নাম দিয়ে সারা দেশে বোমাবাঁজি হত্যা নানা প্রানহানী মূলক নাশকতা সৃষ্টি কর যাচ্ছিল সরকার তাদের জেএমবির সকল কার্যক্রমকে নিষিদ্ধ ঘোষনা কররে নানা ভাবে তাদের গ্রেফতার করে ২০০৭ সালের ৩০ মার্চ শায়খ আবদুর রহমান ও সিদ্দিকুর ইসলাম বাংলা ভাই সহ ছয় র্শীষ জঙ্গির ফাঁসি কার্যকর করে।

বঙ্গবন্ধুর সপরিবার কে হত্যার ৫ খুনির ফাঁসিঃ
১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট একদল সেনা সদস্য ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের বাড়িতে হানা দিয়ে তৎকালীন রাষ্টপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কে ও তার সপরিবার হত্যা মামলার ঘাতক সুলতান শাহরিয়ার, রশিদ খান, বজলুল হুদা, মহিউদ্দিন আহমেদ,সৈয়দ ফারুক রহমান, একেএম মহিউদ্দিনের ফাঁসি ২০১০ সালের ২৮ জানুয়ারি কার্যকর করা হয়।

কাদের মোল্লাঃ
একাত্তরে হত্যা,গনহত্যা,ধর্ষণ ও অগ্নিসংযোগ সহ মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত কাদের মোল্লার ফাঁসি।২০১০ সালের ১৩ জুলাই গ্রেফতার হন মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত কাদের মোল্লা।নানা জল-ফনা কল্পনা আর আইনি মার ফেছে শেষ পর্যন্ত ও বাঁচতে পারলো না কাদের মোল্লা গত ১২ই ডিসেম্বর রাত ১০ টা ০১ মিনিটে কার্যকর করা ফাঁসির রায়।

Leave a Reply