শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়ার ঘোষণা দিলেন ইংলাক সিনাওয়াত্রা

images1

থাইল্যান্ডে পার্লামেন্ট ভেঙ্গে দেয়ার কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রা। সেই সাথে ঘোষণা দিয়েছেন আগাম নির্বাচনের। সোমবার সকালে এই ঘোষণা দেন তিনি । তবে বিরোধীরা বলছে, সরকারের মূল উৎপাটন না করা পর্যন্ত, তাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। সোমবার সকালে হঠাত করেই পার্লামেন্ট ভেঙ্গে দেয়ার কথা জানলেন থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনেওয়াত্রা। ঘোষণাটি হঠাত করে আসলেও নভেম্বের বিক্ষোভ শুরু হওয়ার পর থেকেই আলোচনায় চলে আসে আগাম নির্বাচনের বিষয়টি। সোমবার বিরোধী দল ব্যাপক বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা দিয়েছিলো আগেই ।এরমধ্যে রোববার দাবিতে পদত্যাগ করেন থাইল্যান্ডের বিরোধীদলের পার্লামেন্ট সদস্যরা।এরপরপরেই সকালে পার্লামেন্ট ভেঙ্গে দেয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানালেন ইংলাক।প্রধানমন্ত্রী বলেন এই মাসেই পার্লামেন্ট ভেঙ্গে দিয়ে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হবে।তবে নির্বাচন কবে নাগাদ হতে পারে তা এখনো জানানি তিনি। থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনেওয়াত্রা বলেন, সবার মতামত জানার পর আপনাদের জানাতে চাচ্ছি, এই বছরেই পার্লামেন্ট ভেঙ্গে দেয়ার জন্য একাটি রয়্যাল ডিক্রি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে সরকার বিরোধীরা বলছে তাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। বিরোদী দলীয় নেতা অভিজিত ভেজ্জাজিভা বলেন, নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। দুই হাজার আট সালে  দুর্নীতির মামলায় কারাদণ্ড পাওয়ার পর স্বেচ্ছা নির্বাসনে আছেন ইংলাকের  ভাই থাকসিন সিনাওয়াত্রা ।সাজা থেকে অব্যাহতি দিতে গত মাসে দায়মুক্তির একটি বিল উত্থাপন করে ইংলাক সরকার।এরপরপরেই বিরোধীরা অভিযোগ তোলে ২০১১ সালে নির্বাচিত ইংলাক সরকার দেশ পরিচালনা করছে না।তাকে পরিচালিত করছে তার ভাই থাকসিন। এমন অভিযোগ এনে সরকারের পদত্যাগ ওবং আগাম নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন শুরু করে। ৫ডিসেম্বর রাজার জন্মদিন উপলক্ষ্যে আন্দোলন কিছুটা শিথিল করলেও সোমবার আবার তারা নতুন বিক্ষোভ কর্মসূচি দেয়।

উৎস-ইন্ডিপেনডেন্ট

Leave a Reply