রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

নাটোরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩৩

1256_161847
নাটোরের বড়াইগ্রামে হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কে দুটি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে কমপক্ষে ৩৩ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন আরো ৩০ জন। এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ ও বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে মহাসড়কের রাজ্জাকের মোড় এলাকায় ঢাকা থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জগামী কেয়া পরিবহন এবং রাজশাহী থেকে সিরাজগঞ্জগামী অথৈ পরিবহনের দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। সঙ্গে সঙ্গেই বাস দুটি সড়কের দু’পাশে ছিটকে পড়ে। সংঘর্ষের জের এতোটাই তীব্র ছিল যে, যাত্রীদের লাশ জানালার কাঁচ ভেঙ্গে দিয়ে ছিঁটকে পড়েছিল।
বড়াইগ্রাম থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলেই ২২ জন মারা যান। এছাড়া চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো ১১ জন মারা যান। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। এখন পর্যন্ত ২৩ জনের লাশ স্বজনদের মাঝে হস্তান্তর করা হয়েছে।
তিনি জানান, চিকিৎসাধীন অবস্থায় নাটোর সদর হাসপাতালে ৫ জন, বরাইগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩ জন, আমিন হাসপাতালে ১ জন, পাটওয়ারী ক্লিনিকে ১ জন এবং জয়নাব ক্লিনিকে ১ জন মারা যান।
এ ঘটনায় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। নাটোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আলীকে তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) এবং বিআরটিএ-র সহকারী পরিচালক। কমিটিকে তিন কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।