মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

দুর্বৃত্তের দেয়া আগুনে পুড়ে তিন মেয়েসহ মায়ের মৃত্যু

fire-120141007073417_156697
দুর্বৃত্তের দেয়া আগুনে পুড়ে মা ও তিন মেয়েসহ ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার ভোর ৪টার দিকে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার গোরাইল ইউনিয়নের দক্ষিণ সোহাগপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ আগুন বাইরে থেকে লাগিয়ে দেয়া হতে পারে বলে ধারণা করছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।
নিহতরা হলেন- ওই গ্রামের মজিবুর রহমানের স্ত্রী হাসনা বেগম (৩০), মেয়ে মরিয়ম (১৪), মিম (৬) ও মলি (৪)।
এলাকাবাসী জানায়, ওই কক্ষের বাইরে বেড়া দিয়ে বাধা সৃষ্টি করে পেট্রোলিয়াম জাতীয় দাহ্য পদার্থ ছিটিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এ ছাড়া ওই কক্ষের খোলা জানালা দিয়েও ঘরে দাহ্য পদার্থ ছিটিয়ে দেয়া হয়। এরপর আগুন দেয়া হয়। এ ঘটনায় জাহাঙ্গীর হোসেন নামের এক ব্যক্তি জড়িত থাকতে পারেন বলে সন্দেহ করছেন এলাকাবাসী। প্রতিবেশী জাহাঙ্গীরের সঙ্গে হাসনা বেগমের বিরোধ চলছিল বলে তারা দাবি করেন। সিঙ্গাপুরপ্রবাসী জাহাঙ্গীর এখন দেশে অবস্থান করছেন এবং ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই গ্রামের রিকশাচালক আলী হোসেনকে পুলিশ আটক করেছে।ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) পঙ্কজ চন্দ্র রায় বলেন, দাহ্য পদার্থের সাহায্যে ঘটনাটি ঘটানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে পেট্রল বহনকারী প্লাস্টিকের দুটো ড্রামের ঢাকনা উদ্ধার করা হয়েছে। ওই ড্রাম দুটো জাহাঙ্গীরের রান্নাঘর থেকে উদ্ধার করা হয়। জাহাঙ্গীরকে সন্দেহের চোখে দেখা হচ্ছে। তাঁর পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে।গোরাইল ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আদিলুর রহমান জানান, ভোর চারটার দিকে এলাকাবাসী মজিবুরের বাড়িতে আগুন দেখতে পেয়ে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। খবর পেয়ে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। পরে ঘরের ভেতরে থেকে মা ও তিন মেয়ের পুড়ে যাওয়া লাশ উদ্ধার করেন তারা।