মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

ঢাবিতে ছাত্রী হলে ছাত্রলীগের মারামারি, কয়েকজন ছাত্রী আহত

image_49390.du
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সমর্থকদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। হলে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন ছাত্রী আহত হয়েছে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানায়, সম্প্রতি খাদিজাতুল কোবরাকে সভাপতি এবং শেখ মারুফা নাবিলাকে সাধারণ সম্পাদক করে বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের ছাত্রলীগের কমিটি করা হয়। কমিটি গঠন করার পরে হলের একজন আবাসিক শিক্ষক সীমা ইসলামকে বহিষ্কার করা হয়। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে হল শাখার সভাপতি খাদিজাতুল কোবরার নেতৃত্বে তাঁর অনুসারীরা হলের ভেতরে সীমা ইসলামের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার এবং প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক সাবিতা রিজওয়ানা রহমানের পদত্যাগের দাবিতে স্লোগান দিতে থাকে। এরপর সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সাধারণ সম্পাদক শেখ মারুফা নাবিলার নেতৃত্বে তাঁর সমর্থকরা প্রাধ্যক্ষের পক্ষে স্লোগান দিতে থাকে। এ সময় দুই পক্ষ একে-অপরের মুখোমুখি হলে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে পরস্পরের মধ্যে হাতাহাতিসহ মারামারির ঘটনা ঘটে। সে সময় দুই পক্ষের বেশ কয়েকজন ছাত্রী আহত হন। পরে খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহউপাচার্য সহিদ আক্তার হোসাইন (প্রশাসন), ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আমজাদ আলী এবং ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মেহেদি হাসান ও সাধারণ সম্পাদক ওমর শরীফ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে পরিস্থিতি শান্ত হয়।এ বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আমজাদ আলী সাংবাদিকদের জানান, সমস্যা সমাধানে আলোচনা চলছে। অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ওমর শরীফ বলেন, ‘নিজেদের মধ্যে ভুল-বোঝাবুঝিকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটেছে। আমরা আলোচনায় বসেছি। সমস্যার সমাধান হয়ে গেছে।