শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

ঢাকা আসছেন নিশা দেশাই


Warning: Trying to access array offset on value of type bool in /home/khabarica24/public_html/wp-content/themes/taslimnews/inc/template-tags.php on line 163

49415_f6

 

ঢাকা আসছেন সহকারী মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল। আগামী ২৭শে নভেম্বর কাঠমান্ডুর সার্ক শীর্ষ সম্মেলন শেষ করে ওয়াশিংটন ফেরার পথে বাংলাদেশে দু’দিন কাটাবেন তিনি। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আমেরিকাস অনুবিভাগের মহাপরিচালক মাহফুজুর রহমান ওই সফরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তার আগমন ও প্রস্থানের দিন-ক্ষণ যুক্তরাষ্ট্র ঠিক করবে জানিয়ে তিনি বলেন, এখনও এটি চূড়ান্ত হয়নি। মন্ত্রণালয়ের অপর এক সূত্রের দাবি, মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টে দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া দেখভালের দায়িত্বে থাকা নিশা দেশাই বিসওয়াল সার্ক শীর্ষ সম্মেলন উপলক্ষে এ অঞ্চলে আসবেন- এটি অনেক আগেই জেনেছে ঢাকা। গত মাসের শেষ সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে অংশীদারিত্ব সংলাপ করতে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল নিয়ে ওয়াশিংটনে যান পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক। সংলাপে তার বিপরীতে স্টেট ডিপার্টমেন্টের রাজনীতি বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি ওয়েন্ডি শেরম্যান মার্কিন প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে থাকলেও উদ্বোধনী দিনেই বিসওয়ালের সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেন। ৫ই জানুয়ারির একতরফা নির্বাচনের পর মার্কিন মন্ত্রীর সঙ্গে পররাষ্ট্র সচিবের বৈঠক এবং তৃতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত অংশীদারিত্ব সংলাপকে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ মনে করছেন কূটনৈতিক ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষকরা।  ওই নির্বাচনের আয়োজন থেকে আজ অবধি যুক্তরাষ্ট্র এটাকে স্বীকৃতি দেয়নি। চলমান রাজনৈতিক সঙ্কট উত্তরণে একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন ও কার্যকর সংলাপের তাগিদ রয়েছে দেশটির তরফে। ওই নির্বাচনকে দু’মাস আগে (গত বছর ১৬-১৮ই নভেম্বর) পরিচিতিমূলক সফরে ঢাকায় এসেছিলেন বিসওয়াল। সেই সময়ের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধী দলের নেতা বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক থেকে শুরু করে সরকার ও বিরোধী জোটের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধির সঙ্গে বৈঠকে ‘রাজনৈতিক সঙ্কট নিরসনে দ্রুত সংলাপ’ এবং ‘সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন’ যে জরুরি সেটিই বুঝিয়ে গেছেন। সংলাপ যে অনিবার্য এবং এটি না হলে সঙ্কট আরও বাড়বে সেই স্পষ্ট বার্তা দিয়ে তিন দিনের সফর শেষ করে ওয়াশিংটন ফেরেন তিনি। ২০১৩’র নভেম্বর থেকে চলতি বছরের নভেম্বর, ক্যালেন্ডারের হিসাবে এক বছর ১১ দিন পর ঢাকায় আসছেন মার্কিন ওই মন্ত্রী। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ গোটা দুনিয়ার আহ্বান-অনুরোধ অগ্রাহ্য করে প্রধান বিরোধী জোট ও দলগুলোর বর্জনের মুখে এখানে নির্বাচন হয়েছে। এর অর্ধেকের বেশি আসনে কোন প্রতিদ্বন্দ্বিতাই হয়নি, বাকিগুলোতে যা হয়েছে তা বিশ্ব মিডিয়ায় ‘নামমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা’ বলে চিত্রিত হয়েছে। যদিও ওই নির্বাচনের ফলে শেখ হাসিনা তৃতীয় দফায় প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন এবং তার নেতৃত্বাধীন সরকার প্রায় ১১ মাস পার করতে চলেছে। গত মাসের শেষ সপ্তাহ পর্যন্ত ওয়াশিংটনের সঙ্গে ঢাকার যোগাযোগ ছিল রুটিন। গত ২৮ ও ২৯শে অক্টোবর অনুষ্ঠিত ঢাকা-ওয়াশিংটন অংশীদারিত্ব সংলাপের পর সেই স্থিতাবস্থা কাটিয়ে ওঠার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে দাবি করে সরকারের এক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বলেন, ওই আলোচনার ধারাবাহিকতায় নিশা দেশাই’র কাঠমান্ডু সফরের সঙ্গে ঢাকা যুক্ত হয়েছে। ওই সফরের মধ্য দিয়ে দুই দেশের সরকারের মধ্যে যোগাযোগ ও উচ্চ পর্যায়ের সফর বিনিময়ের পথ আরও প্র্রশস্ত হবে বলে আশা করেন সরকারের ওই দায়িত্বশীল কর্মকর্তা। তবে মার্কিন মন্ত্রীর আসন্ন সফর নিয়ে বিরোধী মহলও উচ্ছ্বসিত। রাজপথের বিরোধী দল বিএনপির বৈদেশিক সম্পর্ক বিষয়ক টিমের এক সদস্য  বলেন, নির্বাচন ও সরকার প্রশ্নে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যে নাখোশ নিশা ঢাকায় সেটিই পুনরুল্লেখ করবেন  এমনটাই আশা করছি। সফরকালে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠকেরও আভাস দেন ওই নেতা।