বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

কুমিল্লার রসমালাইয়ে বরযাত্রীদের মুগ্ধ করতে চায় কনেপক্ষ

muz_166192
নতুন সাজে সেজেছে কুমিল্লার মীরাখলা গ্রাম। গ্রামের প্রায় প্রতিটি ঘর মেরামত, পরিষ্কার ও সড়ক মেরামতের কাজ চলছে পুরোদমে। এতো সব আয়োজনের কারণ, শুক্রবার এ গ্রামেই বররূপে আসছেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক। আর এ বিয়ে দেখার জন্য আশপাশের গ্রামের বাসিন্দারা মুখিয়ে আছেন।
আর বরযাত্রীদের আতিথেয়তা দিয়ে প্রস্তুত কনেপক্ষ। আতিথেয়তায় কোন রকম ঘাটতি রাখতে চায় না কনের আত্মীয়স্বজনরা। কনেপক্ষের শতাধিক নারী-পুরুষ একই পোশাকে বরণ করবে বরযাত্রীদের। বিয়ে উপলক্ষে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে জেলা প্রশাসন। কনের বাড়ির আশপাশের এলাকায় থাকবে অতিরিক্ত পুলিশ প্রহরা। এছাড়া থাকবে সাদা পোশাকে পুলিশের টহল। আমন্ত্রিত অতিথিদের আমন্ত্রণপত্র দেখিয়ে প্রবেশ করতে হবে বিয়ের অনুষ্ঠানে।
জানা গেছে, প্রায় রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক ৫০০ জন বরযাত্রী নিয়ে ঢাকার সরকারি মিনিষ্টার্স অ্যাপান্টমেন্ট থেকে কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার মীরাখলা গ্রামে যাবেন। সেখানে বিয়ে সম্পন্ন হবে। সব মিলিয়ে প্রায় ২ হাজার অতিথি থাকবেন বিয়ের অনুষ্ঠানে। এরই মধ্যে অতিথিদের খাবারের জন্য বাবুর্চি নেয়া হয়েছে ঢাকা থেকে। বিয়ের অনুষ্ঠানের ঐতিহ্যবাহী খাবারের পাশাপাশি থাকবে চাইনিজ খাবার। এছাড়া বরযাত্রীদের মুগ্ধ করতে কুমিল্লার ঐতিহ্যবাহী রসমালাইয়ের পাশাপাশি বিশেষভাবে তৈরি মিষ্টি রাখা হচ্ছে।
বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে ওই দিন রাত ৮টার মধ্যেই নববধূ নিয়ে রাজধানীর বেলীরোডস্থ সরকারি মিনিষ্টার্স অ্যাপান্টমেন্টর ৩৯/এ বাসার দ্বিতীয় তলায় উঠবেন রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক। এর পর মন্ত্রীর গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার বসুয়ারা গ্রামে বৌ-ভাতের অনুষ্ঠান হবে ৬ ডিসেম্বর। আর দ্বিতীয় বৌ-ভাত অনুষ্ঠানটি হবে ১৪ নভেম্বর, জাতীয় সংসদ ভবন চত্ত্বরের ২ নম্বর এলডি হলে।