শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

কারা হেফাজতে সোনালী ব্যাংকের সাবেক ডিজিএমের মৃত্যু

azizur rahman_138792

হলমার্ক কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত সোনালী ব্যাংকের সাবেক ডিজিএম আজিজুর রহমান মারা গেছেন। রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের প্রিজন সেলে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার ফরমান আলী যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। আজিজুর রহমান সোনালী ব্যাংকের রুপসী বাংলার (সাবেক শেরাটন) শাখার ম্যানেজার ছিলেন।

শাহবাগ থানা পুলিশ জানায়, তার লাশ উদ্ধার ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এদিকে তার এ মৃত্যু নিয়ে নানা রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। তিনি অসুস্থতাজনিত কারণে মারা গেছেন কিনা তা নিয়ে শুরু হয়েছে নানা গুঞ্জন ।

জানা যায়, আজিজুর রহমানের বাড়ি গোপালগঞ্জের কাশিয়ানির শুকতাগ্রামে। তার বাবার নাম মরহুম আবুল কালাম খান। তিনি ঢাকায় রামপুরার বনশ্রীর সি ব্লকে থাকতেন। হলমার্ক কেলেঙ্কারিতে রমনা থানায় দায়ের করা মামলায় এ ব্যাংক কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি ওই ঘটনার পর সাময়িক বরখাস্ত ছিলেন। পরে মামলা হলে গা ঢাকা দেন। পরে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে জবানবন্দিতে তিনি রাঘববোয়ালদের নাম প্রকাশ করেন।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়ির জেল সুপার ফরমান আলী যুগান্তরকে জানান, আজিজুর রহমান গত ১৩ আগস্ট কারা হেফাজতে থেকে হাসপাতালে ভর্তি হন। তার উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিসে ভূগছিলেন। তার আবেদনের প্রেক্ষিতে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার তাকে আদালতে হাজির করা হয়। আদালতে নেয়ার পর তিনি অসুস্থ হলে আবারও হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, ব্যাংক কর্মকর্তা একেএম আজিজুর রহমান তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলেছিলেন, হলমার্ককে ঋণ দেয়ার ঘটনাসহ শেরাটন শাখার সব কার্যক্রমের তথ্য ব্যাংকের নির্ধারিত ফর্মের (এক-২২) মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকের জিএম অফিস এবং প্রধান কার্যালয়ে প্রতি সপ্তাহে এবং কলাম-৮৫-এর (নির্ধারিত ফর্ম) মাধ্যমে প্রতি মাসে অবহিত করা হত। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ শেরাটন শাখার সব বিষয়ে অবগত ছিলেন।