শুক্রবার, ২৯ অক্টোবর ২০২১, ১৪ কার্তিক ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

আগামী বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ থাকবে না : অর্থমন্ত্রী

image_81887.1

 

আগামী ২০১৩-১৪ অর্থবছরের বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ থাকবে না বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। তিনি বলেন, এর আগে অনেকবার বাজেটে কালো টাকা বিনিয়োগের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে অনেক কথাও হয়েছে। তবে এবার আর এ সুযোগ দেওয়া হবে না।
আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে আগামী বাজেট নিয়ে বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশন (এফবিসিসিআই) এবং জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) আয়োজিত পরামর্শক কমিটির ৩৫তম সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।সভায় অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, বিনিয়োগ বোর্ডের চেয়ারম্যান মোল্লাহ ওয়াহেদুজ্জামান, এফবিসিসিআই সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ, সাবেক সভাপতি এ কে আজাদ, বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ রপ্তানিকারক সমিতির সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী, এফবিসিসিআই সহসভাপতি মনোয়ারা হাকিম আলী ও হেলালউদ্দিন আহমেদ প্রমুখ বক্তব্য দেন।সভা সঞ্চালনা করেন এনবিআর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ গোলাম হোসেন।মুহিত বলেন, দীর্ঘমেয়াদে ব্যক্তিশ্রেণীর করমুক্ত আয়সীমা অপরিবর্তিত রাখা যায় কি না, এ নিয়ে চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করমুক্ত আয়সীমা বাংলাদেশি মুদ্রায় দুই লাখ ৮০ হাজার টাকা দশ বছর ধরে অপরিবর্তিত রয়েছে। একইভাবে বাংলাদেশেও আগামীতে যে করমুক্ত আয়সীমা ধার্য করা হবে তা পরবর্তী ১০ বছরের জন্য অপরিবর্তিত রাখা যেতে পারে।আগামীতে এ ধরনের পদ্ধতি চালু করার বিষয়ে অর্থমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানান। তিনি আরো জানান, উত্পাদনমুখী যেসব খাতে প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে তা আগামী অর্থবছরের বাজেটেও অব্যাহত থাকবে।এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, আগামী বাজেটের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হলো রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা। কারণ প্রায় দেড় লাখ কোটি টাকার যে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে, তা অর্জনে এনবিআরকে সার্বক্ষণিক অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে কাজ করতে হবে।
এফবিসিসিআই আগামী অর্থবছরের বাজেটে অন্তর্ভুক্তির জন্য ৬১৭টি প্রস্তাবানা সভায় পেশ করে। এর মধ্যে আয়কর সংক্রান্ত ১৭৫, আমদানি শুল্ক ২৮৭ এবং মূসক সংক্রান্ত প্রস্তাবনা রয়েছে ১৫৫টি।