শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

১০ দিনের রিমান্ডে মান্না

Manna-1424859174

সেনাবাহিনীকে উসকানি দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক ও ঢাকসুর প্রাক্তন ভিপি মাহমুদুর রহমান মান্নাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।বুধবার বিকেলে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুবুর রহমানের আদালতে শুনানি শেষে রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করা হয়। এর আগে শুলশান থানার একটি মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য মাহমুদুর রহমান মান্নাকে গুলশান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল বারী ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।এ সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন মান্নার স্ত্রী মেহের নিগা, মেয়ে নিলম মান্না, তার বড়ভাই ও ভাবী। এর আগে বিকেল ৩টার পর মান্নাকে আদালতে আনা হয়।সোমবার দিবাগত গভীর রাতে বনানীর এক বাসা থেকে সাদা পোশাকধারী ডিবি পরিচয়ে কে বা কারা মান্নাকে ধরে নিয়ে যায়। মান্নার পরিবার দাবি করেন, তাকে ডিবি পুলিশ ধরে নিয়ে গেছে। কিন্তু তখন পুলিশের পক্ষ থেকে তা অস্বীকার করা হয়।মঙ্গলবার রাতে পুলিশ জানায়,  রাত ১০টার দিকে ধানমন্ডির স্টার কাবাবের সামনে থেকে মান্নাকে আটক করেছে র‌্যাব-১। রাতে তার বিরুদ্ধে সেনাবিদ্রোহে উসকানি দেওয়ার অভিযোগে গুলশান থানায় রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা দায়ের করা হয়। রাত ১২টা পর তাকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়।দেশের চলমান রাজনৈতিক সংকটে সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলন বেগবান করার বিষয়ে ঢাকার প্রাক্তন মেয়র ও বিএনপির নেতা সাদেক খোকা ও অজ্ঞাত এক ব্যক্তির সঙ্গে মান্নার কথোপকথনের দুটি অডিও ফাঁস হওয়ার পর ঘটনাটি ব্যাপক আলোচনার জন্ম দেয়। আন্দোলন ত্বরান্বিত করতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েকটি লাশ পড়লেও পড়ুক বলে কথোপকথনে মন্তব্য করেন মান্না। অডিও ফাঁস হওয়ার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি ও কয়েকজন মন্ত্রী মান্নাকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছিলেন। ছাত্রলীগ দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে।