শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

স্পিকার শিরীন শারমিন সিপিএ চেয়ারম্যান নির্বাচিত

image_137767.shirin_sharmin
স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি অ্যাসোসিয়েশনের (সিপিএ) নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে। আজ ৯ অক্টোবর ক্যামেরুনের রাজধানী ইয়াউনদে’তে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে তিনি ৭০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বিী ক্যায়েমেন আইল্যান্ডের প্রথম নারী মন্ত্রী ও বর্তমান স্পিকার জুলিয়ানা ও’কন্নর-কন্নোলি পেয়েছেন ৬৭ ভোট। সংসদ সচিবালয়ের পরিচালক (গণসংযোগ) এস এম মঞ্জুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। শিরীন শারমিনের বিজয়ের মধ্য দিয়ে কোনো বাংলাদেশি এই প্রথম সিপিএ চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হলো।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর গণতন্ত্র, সুশাসন ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করে থাকে সিপিএ। ১৯১১ সালে এই প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়। বাংলাদেশ সিপিএ’র সদস্যপদ লাভ করে ১৯৭৩ সালে। বর্তমানে ৫৩টি দেশের ১৭৫টি পার্লামেন্ট এই এসোসিয়েশনের সদস্য। গত ২ অক্টোবর সিপিএ’র ৬০তম সম্মেলন শুরু হয়েছে। আজ ক্যামেরুনের সময় সকাল ৯টায় তিন বছর মেয়াদী নির্বাহী কমিটির নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয়। সদস্যভূক্ত পার্লামেন্টগুলোর ৩২১জন সদস্য এই নির্বাচনে ভোটার ছিলেন। তবে অর্ধেকের বেশী ভোটার অনুপস্থিত ছিলেন। বিকেলে নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণা করা হয়। আজ সিপিএর ৩৫ সদস্য বিশিষ্ট নতুন নির্বাহী কমিটির দায়িত্ব গ্রহণের মধ্য দিয়ে এই সম্মেলন শেষ হবে।
সিপিএ সম্মেলনে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দলে অংশ নিচ্ছেন। প্রতিনিধিদলে আছেন- হুইপ মো. শহীদুজ্জামান সরকার, সংসদ সদস্য ইমরান আহমেদ, সাগুফতা ইয়াসমিন ও ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল। এই সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রার্থীর বিজয়কে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বড় ধরনের অর্জন বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
উল্লেখ্য, সিপিএ’র বর্তমান চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নি¤œকক্ষ হাউজ অব কমন্সের এমপি স্যার অ্যালান হ্যাসেলহার্টস। এরআগে ১৯৮৪-৮৭ মেয়াদে ভারতের এমপি বাল রাম ঝাকার এবং ২০০৫-২০০৮ মেয়াদে পশ্চিমবঙ্গের এমএলএ হাশিম আব্দুল হালিম সিপিএ’র চেয়ারম্যানের দায়িত্বে ছিলেন। আর বাংলাদেশের বর্তমান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ডেপুটি স্পিকার থাকাকালে সিপিএ নির্বাহী কমিটির সদস্য পদে দায়িত্ব পালন করেন।
এদিকে সংসদ সচিবালয় জানিয়েছে, আইপিইউর প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে বাংলাদেশের প্রতিনিধি। সেখানে প্রার্থী হয়েছেন সরকার দলীয় সংসদ সদস্য সাবের হোসেন চৌধুরী।  সিপিএ সম্মেলন শেষ করে স্পিকার সুইজারল্যান্ডের রাজধানী জেনেভায় আইপিইউ’র ১৩১তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিবেন। তার আগে ১১ অক্টোবর আইপিইউ’র গ্লোবাল কনফারেন্স অব ইয়াং এমপিস’ কনফারেন্সে অংশ নিবেন স্পিকার। ১৬ অক্টোবর জেনেভা থেকে ভারতে যাবেন তিনি। দিল্লিতে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক উন্নয়ন বিষয়ক একটি সেমিনারে যোগ দিবেন স্পিকার। ২০ অক্টোবর ভারতের ভাইস প্রেসিডেন্ট হামিদ আনসারীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন তিনি। ২১ অক্টোবর স্পিকারের দেশে ফেরার কথা রয়েছে।