রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

সোজা আঙুলে ঘি উঠবে না : মির্জা ফখরুল

সোজা আঙুল দিয়ে ঘি উঠবে না, তাই আন্দোলন করে সরকারকে উৎখাত করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ বিকেলে জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালার প্রতিবাদে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।ফখরুল বলেন, পুলিশ ও পেটোয়া বাহিনী দিয়ে আন্দোলন দমন করা হয়। সাধারণ মানুষকে গুলি করে হত্যা করা হয়। দেশে আইন নেই। মাত্র ৫ পার্সেন্টও ভোট পড়ে নাই এমন একটি নির্বাচন দিয়ে এই অবৈধ সরকার টিকে আছে। তিনি বলেন, আমাদের এই দখলবাজ সরকারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে, আন্দোলন ছাড়া এর কোনো বিকল্প নাই বলে মন্তব্য করেন।
ফখরুল বলেন, ‘আমাদের অস্তিত্ব রক্ষার জন্য লড়াই করতে হবে। এবারের লড়াই হবে ২০ দলের ক্ষমতায় যাওয়ার লড়াই নয়, জনগণের অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই। এ সময় ফখরুল সমাবেশস্থলের সবাইকে হাত তুলে আন্দোলনে অংশগ্রহণের সম্মতির জন্য আহ্বান জানান। মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে প্রথম আঘাত হানে মিডিয়ার ওপর। কারণ তাদের বিপক্ষে যেন কেউ কথা বলতে না পারে। অতীতে তারা অসংখ্য গণমাধ্যম বন্ধ করেছে। সাংবাদিক ও সম্পাদকদের হয়রানি ও নির্যাতন করেছেফখরুল বলেন, ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের মুখ থেকে আগে গণতন্ত্রের ফেনা ফের হলেও এখন তাদের আসল চেহারা উন্মোচিত হতে শুরু করেছে। তাদের আসল চেহারা, তাদের প্রকৃত মুখোশ বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে। তাদের নেতারা বলতে শুরু করেছেন, গণতন্ত্র থাকলে নাকি দেশের উন্নয়ন হয় না।জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা প্রতিবাদে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট এই প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করেছে। প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করছেন মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মির্জা আব্বাস। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেবেন ২০ দলীয় জোট নেতা বেগম খালেদা জিয়া।এর আগে বিকেল পৌনে ৩টায় পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় সমাবেশ। তবে দুপুর ১টা থেকেই ২০ দলীয় জোটের নেতা-কর্মীরা মিছিল সহকারে হাতে বিভিন্ন ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে সমাবেশে যোগ দেওয়ার জন্য আসতে শুরু করে। সমাবেশে জামায়াত-শিবিরের উপস্থিতি লক্ষ্যণীয়। এ ছাড়া সমাবেশস্থলে বিভিন্ন বন্ধ গণমাধ্যম খুলে দেওয়ার দাবিতে অসংখ্য ব্যানার প্রদর্শন করা হয়েছে।image_118896.fakhrul-on-election