শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

সীতাকুন্ডের কুমিরায় স্ত্রী হত্যার দায়ে পুলিশ সদস্য গ্রেফতার

সীতাকুন্ড প্রতিনিধি: কুমিরায় স্ত্রী হত্যার দায়ে যৌতুকলোভি স্বামী পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। গতকাল রবিবার রাতে চট্টগ্রামস্থ মুরাদপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। সূত্রে জানা যায়,উপজেলার ছোট কুমিরা মসজিদ্দা এলাকায় গত ৯ সেপ্টেম্বর সিএমপি কর্মরত পুলিশ কনেস্টেবল কৃষ্ণ ঘোষের স্ত্রী শিল্পী দের লাশ পুকুরে ভাসতে দেখে বাড়ির লোকজন পানি থেকে লাশটি তুলে বাড়ির উঠানে রাখে। এসময় বাড়ির লোকজন শিল্পীর মৃত্যুর বিষয়টি তার মা-বাবাকে জানায়। মৃত্যুর খবর পেয়ে শিল্পীর মা-বাবা তার শুশুর বাড়িতে ছুটে আসেন। এসময় তারা শিল্পীর মৃত্যু রহস্যজনক মনে করে বিষয়টি পুলিশকে জানায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেন। ঐ সময় শিল্পীর স্বামীকে পুলিশ আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দেয়।পরবর্তীতে লাশটির ময়না তদন্ত রিপোর্টে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার বিষয়টি পুলিশ নিশ্চিত হওয়ার পর শিল্পীর পিতা তুষার দে বাদি হয়ে ৬ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা করে। মামলায় পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১ নম্বর আসামী স্বামীকে গ্রেফতার করেন ও ২ নম্বর আসামীও পুলিশ কনেষ্টেবল হওয়ায় থানা পুলিশ আসামী ধরতে গড়িমসি করছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করেন। নিহতশিল্পীর মামা অসিত দাশ জানান,বিয়ের পর থেকে তার স্বামী পুলিশের এ এস আই হওয়ারজন্য যৌতুকের দাবি করলে এক লক্ষ টাকা দেওয়া হয়। পরে আবার যৌতকের জন্য চাপ সৃষ্টি করলে দেওয়ায় অস্বীকৃতি জানালে শ্বাসরুদ্ধকরে আমার ভাগ্নীকে হত্যা করে এবং হত্যা মামলায়
আসামীগুলো পুলিশে চাকুরি করায় পুলিশ আসামী ধরতে নিস্কৃয় ভূমিকা পালন করছে বলেও
তিনি জানান। এসব বিষয়ে সীতাকু-থানার ভারপ্রাপ্ত দায়িত্বে থাকা ইনচার্জ দেলোয়ার বলেন,মামলার প্রেক্ষিতে আমরা একজন আসামীকে গ্রেফতার করেছি,বাকিদেরও গ্রেফতার করার চেষ্টা অব্যাহত আছে.