শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

সার্ক সম্মেলন শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

image_156445.hasina
নেপালের কাঠমান্ডুতে অষ্টাদশ সার্ক শীর্ষ সম্মেলন শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইটে শুক্রবার সকাল ১২টা ১০ মিনিটে তিনি ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান। এর আগে কাঠমান্ডুর স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৫০ এ নেপাল থেকে দেশের পথে রওনা হন প্রধানমন্ত্রী।কাঠমান্ডুর সোয়ালটি ক্রাউন প্লাজা হোটেল থেকে মোটর শোভাযাত্রা করে প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছালে সেখানে তাকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। বিমানবন্দরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান নেপালের উপপ্রধানমন্ত্রী প্রকাশ মান সিং।দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থার (সার্ক) অষ্টাদশ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে মঙ্গলবার বিকালে কাঠমান্ডু পৌঁছান শেখ হাসিনা।পরদিন সকালে তিনি কাঠমান্ডুর ‘রাষ্ট্রীয় সভাগৃহে’ সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন এবং সব মতপার্থক্য সরিয়ে যৌথ সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে আসার জন্য সার্ক নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান।সম্মেলনের মূল আনুষ্ঠানিকতার বাইরে বুধবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ, নেপালের প্রধানমন্ত্রী সুশীল কৈরালা এবং আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ গানির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নেন শেখ হাসিনা। সার্ক নেতাদের সম্মানে নেপালের প্রধানমন্ত্রী সুশীল কৈরালার দেওয়া নৈশভোজেও তিনি অংশ নেন।
ঠাণ্ডাজনিত অসুস্থতার কারণে বৃহস্পতিবার সকালে নেপাল থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে ধুলিখেল রিসোর্টে যেতে না পারলেও বিকালে সার্কের সমাপনী অনুষ্ঠানের যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী।তিনটি চুক্তির আশা নিয়ে এই সম্মেলন শুরু হলেও অনেক টানাপড়েনের পর বিদ্যুৎ সহযোগিতার একটি চুক্তি সই হয় এই সমাপনী অধিবেশনেই।আট সদস্য দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের সম্মতিতে ৩৬ দফা কাঠমান্ডু ঘোষণার মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার বিকালে শেষ হয় এবারের সম্মেলন। বৃহস্পতিবার রাতে সার্ক নেতাদের সম্মানে নেপালের রাষ্ট্রপতি রাম বরণ যাদবের দেওয়া নৈশভোজে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।