শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

সাবের হোসেন চৌধুরী আইপিইউ’র প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত

image_140139.333
আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ-সদস্য এবং বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী আগামী তিন বছরের জন্য ইন্টার-পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (আইপিইউ)‘র প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। তিনিই প্রথম বাংলাদেশী যিনি প্রথম এই পদে নির্বাচিত হলেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, আইপিইউ’র ১৩১তম সম্মেলন সুইজারল্যান্ডের রাজধানী জেনেভায় ১২ অক্টোবর শুরু হয়। পাঁচ দিন ব্যাপী সম্মেলনের ৪র্থ দিন গত বুধবার নতুন কমিটি নির্বাচনের জন্য ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। আজ বৃহস্পতিবার সমাপনী দিনে নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণা করা হয়। নির্বাচনী ফলাফলে দেখা গেছে, চার প্রতিদ্বন্দ্বির মধ্যে সাবের হোসেন চৌধুরী পেয়েছেন ১৬৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি অষ্ট্রেলিয়া পার্লামেন্টের স্পিকার ব্রনউইন বিশপ পেয়েছেন ৯৫ ভোট।
সংশ্লিষ্টরা জানান, আইপিইউ’র ইতিহাসে এতো বড় ব্যবধানে বিজয়ের ঘটনা এই প্রথম। বিশ্বের ১৬৪টি দেশের আইনসভার সংগঠন আইপিইউ’র প্রেসিডেন্ট পদে আরো প্রার্থী ছিলেন সংসদ সদস্য নুরহায়াতি আলী আসিগাফ ও মালদ্বীপের আইনসভার সাবেক স্পিকার আবদুল্লাহ শহীদ। বর্তমানে এই সংস্থার প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করছেন মরক্কোর পার্লামেন্টের স্পিকার আবদেল ওয়াহাদ রাদি।
সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, আইপিইউ সম্মেলনে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর নেতৃত্বে ১৭ সদস্যের প্রতিনিধিদল যোগ দেন। গত ১০ অক্টোবর কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি অ্যাসোসিয়েশনের (সিপিএ) সম্মেলন শেষে স্পিকার শিরীন শারমিন ওই সম্মেলনে যোদ দেন। এরআগে গত ৯ অক্টোবর সিপিএ চেয়ারপার্সন পদে নির্বাচিত হন। এরপর তিনি আইপিইউ নির্বাচনে ঢাকা-৯ আসনের সংসদ সদস্য সাবের হোসেন চৌধুরীর পক্ষে প্রচারণা চালান।
অভিজ্ঞ সাংসদ সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরীর জন্ম ১৯৬১ সালের ১০ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম জেলায়। আওয়ামী লীগ সরকারের ১৯৯৬-২০০১ মেয়াদে তিনি নৌ-পরিবহন উপমন্ত্রী এবং পরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পান। এসময় তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতিও ছিলেন। তিনি ২০০১ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক সচিবের দায়িত্বও পালন করেন। তিনি এরআগে আইপিইউতে একাধিক পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।