বৃহস্পতিবার, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৭ মাঘ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

রুবেলকে এখনও ভালবাসেন, জানালেন হ্যাপি

image_199404.5

 

তাঁর বয়স মাত্র ১৯। কিন্তু এর মধ্যেই তিনি লাইমলাইটের আলোয়। তা সে রূপালি পর্দায় অভিনয়ের জন্যই হোক, বা তাঁর দেশের ক্রিকেটার রুবেল হোসেনের সঙ্গে ব্যর্থ সম্পর্কে জড়িয়ে তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেই হোক। তিনি— নাজনিন আখতার হ্যাপি, বাংলাদেশের ফিল্ম জগতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী। তবে, এখন সম্পর্ক-কাণ্ড থেকে বেরিয়ে এসে নাজনিন সামনের দিকেই তাকাতে চান। আর সেই সামনের দিকে রয়েছেন কিনা সেই রুবেল! সাক্ষাৎকারে নাজনিন জানান, ‘অপকর্মের’ জন্য তিনি রুবেলকে ‘ক্ষমা’ করে দিয়েছেন। একইসঙ্গে জানিয়ে দিলেন, স্রেফ প্রাক্তন বয়ফ্রেন্ডের জন্যই তিনি বৃহস্পতিবার ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচটি দেখবেন। এদিন নাজনিন সাফ জানিয়ে দেন, শত বিতর্কের মধ্যেও তিনি রুবেলের খেলার বড় ভক্ত। বলেন, ‘আমি ক্রিকেট সম্পর্কে খুব একটা বুঝি না। কিন্তু, শুধু রুবেলের জন্যই বৃহস্পতিবার ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচ দেখব।’ অভিনেত্রী যোগ করেন, ‘প্রত্যেক বাংলাদেশির মত আমিও সেদিন চাইব বাংলাদেশ জিতুক। একইসঙ্গে চাইব রুবেল সেই জয়ে অবদান রাখুক।
রুবেল-নাজনিন সম্পর্ক অন্য মোড় নেয় গত জানুয়ারি মাসে, যখন বাংলা ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনেন অভিনেত্রী। এর জেরে তিনদিন হাজতবাসও করতে হয় রুবেলকে। নাজনিন জানান, সেসব এখন অতীত। বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে রুবেলের দুরন্ত পারফরম্যান্সের পর তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ প্রত্যাহার করে নিয়েছেন নাজনিন। এদিন বলেন, ‘আমি ওকে ক্ষমা করে দিয়েছি। হ্যাঁ, ও আমার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। তা সত্ত্বেও আমি আজও ওকে ভালবাসি।’ এর সঙ্গেই যোগ করেন, রুবেলের সঙ্গে এখন বেশ কয়েক মাস কোনও কথা হয়নি। তবুও, তিনি ক্রিকেটার রুবেলের সাফল্য কামনা করেন। ভবিষ্যতে রুবেলের সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছা আছে কি তাঁর? প্রশ্নের উত্তরে ওপার বাংলার রূপালি পর্দার এই জনপ্রিয় নায়িকা স্বীকার করেন, এত কিছুর পরও রুবেলের সঙ্গে দেখা করতে চান। বলেন, ‘দল বিশ্বকাপ থেকে দেশে ফিরলে ওর সঙ্গে দেখা করতে চাই। কিছু বিষয় আছে, যেগুলিকে মেটানো প্রয়োজন।’ তবে, রুবেল তাঁর সঙ্গে আর কখনও দেখা করবেন কিনা, সেই নিয়ে সন্দিহান এই অভিনেত্রী।
এখন দুজনে একে অপরের থেকে শতযোজন দূরে। রুবেল যেখানে অস্ট্রেলিয়ায় ব্যস্ত দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে, সেখানে নাজনিন দেশে ব্যস্ত ছবি নিয়ে। তবে, দুজনের মধ্যে মিল একটা জায়গায়। রুবেল চাইছেন বিশ্বকাপ অভিযানকে আনন্দের সঙ্গে শেষ করতে। আর ঢাকায় বসে বিতর্কের ‘হ্যাপি এন্ডিং’ চাইছেন নাজনিন আখতার হ্যাপি। সূত্র: এবিপি আনন্দ