শনিবার, ৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

রাজধানীতে ১৪৯ স্বর্ণের বারসহ তিন পুলিশ সদস্য আটক

gold_83393
রাজধানীতে অভিযান চালিয়ে ১৪৯টি স্বর্ণের বারসহ তিন পুলিশ সদস্য ও পুলিশের এক সোর্সকে আটক করা হয়েছে। আটকরা হলেন- রামপুরা থানার এসআই মঞ্জুরুল আলম, কনস্টেবল ওয়াহিদ ও আকাশ এবং তাদের সোর্স রানা। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে।  গত ১৩ মার্চ রামপুরা থানায় স্বর্ণের বার ও প্রাইভেটকারসহ কয়েকজনকে আটক করেছিল পুলিশ। সেসময় আটককৃত স্বর্ণের বারের সঠিক সংখ্যা নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়। প্রাইভেট কারে বেশী সংখ্যক স্বর্ণের বার থাকলেও দুই কনস্টেবল ও একজন এসআই প্রায় দুইশ পিচ সরিয়ে ফেলেন। বিষয়টি পুলিশের উচ্চ পর্যায়ে জানাজানি হবার পর তোলপাড় পড়ে যায়। পরে এ ঘটনায় তৎকালীন রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  কৃপা সিন্দুবালা ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) নাসিম আহমেদকে ক্লোজড করা হয়।মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম শাখার সহকারী কমিশনার আবু ইউসুফ মঙ্গলবার এ তথ্য জানান।
একটি সূত্র জানায়, ১৩ মার্চ যে প্রাইভেট কার আটক করা হয় সেটিতে প্রায় ২০কেজি স্বর্ণ ছিল। এই কারটি ঢাকা থেকে সীমান্ত এলাকায় যাচ্ছিল। প্রাইভেট কারে দুজন যাত্রীকে আটক করা হয়। এদের মধ্যে একজন ভারতীয় নাগরিক বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। আরেকজন ভারতীয় নাগরিক কেৌশলে পালিয়ে গেছেন। রামপুরা বনশ্রী এলাকায় বাসা ভাড়া থেকে আটক যাত্রী দীর্ঘদিন যাবত স্বর্ণ চোরাচালানের ব্যবসা করে আসছিলেন। বিষয়টি জানা জানি হবার কারনেই স্বর্ণের বার উদ্ধারে নামে সিআইডি। তবে এই স্বর্ণ চোরাচালানের সাথে ডিএমডির একজন ক্ষমতাধর ওসি প্রত্যক্ষভাবে জড়িত বলে পুলিশ জানিয়েছে। এই ওসির বাড়ি আবার একটি বিশেষ জেলায় হবার কারনে তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে চায় না।