সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

যানজট নিরসনে ঢাকায় রিকশা বন্ধের পক্ষে মত দিয়েছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী

ng
রোববার (১৭ জানুয়ারি) রাতে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশের (আইইবি) সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ যানজট বিষয়ক এক সেমিনারের আয়োজন করে।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, ঢাকা শহরে রিকশা বন্ধ করা উচিত। যদি এটা না পারা যায় তাহলে লাইসেন্সকরা রিকশাগুলো রেখে অলাইসেন্সকরা রিকশাগুলো বন্ধ করতে হবে।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন, আইইবি’র প্রেসিডেন্ট কবির আহমেদ ভূইয়া ও ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) গোলাম ফারুক।

মোশাররফ হোসেন বলেন, আগের পরিকল্পনাবিদরা চিন্তা করেনি ঢাকার শহর এতো বাড়বে। তাদের দুরদর্শিতার অভাব রয়েছে।

যান নিরসনের পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, রাস্তার পাশে কোনো পার্ক অ্যালাউ করা উচিত নয়। যদি কেউ পার্ক করে তাহলে পুলিশ যেন রেকার দিয়ে তা উঠিয়ে নেয়। বর্তমানে বিভিন্ন বিল্ডিংয়ের বেজমেন্টে রেস্টুরেন্ট করা হয়। তাহলে বেজমেন্টের গাড়িগুলো কোথায় থাকবে। নিশ্চই রাস্তায়। আর এতে যানজট বাড়ে। অতিদ্রুত এসব স্থাপনায় অভিযান চালাবো। এসব ব্যবসা উচ্ছেদ করা হবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, একটি প্রকল্প আবহমানকাল ধরে চলে। এ জন্য আমি সবাইকে নিয়ে পূর্বাচলে মিটিং করে বলে দিয়েছি ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে পূর্বাচলের সব কাজ শেষ করতে হবে। এ কাজ শেষ হলে পূর্বাচল হবে একটি পরিপূর্ণ স্বাধীন এলাকা।