রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

মুশফিক চান হোয়াইটওয়াশ

images

তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম দুটি জিতে ইতোমধ্যেই সিরিজ জয় নিশ্চিত করেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।ফলে আগামী ১২ নভেম্বর থেকে চট্টগ্রামে শুরু হতে যাওয়া শেষ টেস্টটিতে জয় পেলেই প্রথমবারের মতো তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজে প্রতিপক্ষকে হোয়াইটওয়াশ করার গৌরব অর্জন করবে টাইগাররা।আর শেষ টেস্টে সেই লক্ষ্যেই মাঠে নামবে স্বাগতিকরা।খুলনা টেস্ট শেষে সংবাদ সম্মেলনে এমনটিই জানিয়েছেন টাইগার দলপতি মুশফিকুর রহিম।মুশফিক বলেন, শেষ টেস্টেও লক্ষ্য থাকবে অবশ্যই জয়, এবং সন্তেষজনক জয়।খুলনা টেস্ট জয় নিয়ে কখনই সংশয় ছিলোনা বলেও জানান তিনি।এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘কখনো মনেই হয়নি ম্যাচটা ড্র হতে পারে। প্রথম ইনিংসে চাকাভা ও মাসাকাদজা ভালো করেছে ফলে তাদের বিপক্ষে একটা পরিকল্পনা ছিলো। এরপর যারা আছে তাদের কেউই তেমন রানে নেই। আমাদের পরিকল্পনাটা ছিল, ওদের (মাসাকাদজা ও চাকাভা) মধ্যে যেকোনো একটি উইকেট নিতে হবে।’চতুর্থ দিন শেষে ২৬৬ রান এগিয়ে থাকলেও টেস্টের শেষ দিনে প্রায় ২০ ওভার ব্যাট করার পর ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ।জয়ের জন্য এটি ঝুকিপূর্ণ ছিলো কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মুশফিক বলেছেন,  উইকেটে কিন্তু খুব বেশি সহায়তা ছিলনা। আমাদের আগে একটা নিরাপদ অবস্থায় যেতে হতো। তবে ৭৫ ওভার হাতে থাকলে খুবই ভাল হত। তারপরও আমাদের বিশ্বাস ছিল সাকিব, তাইজুল, লিখন ভাল জায়গায় বল করলে সব কিছুই সম্ভব। শুরুতে উইকেট নেওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আমার মনে হয় লাঞ্চের আগের সময়টা খুব কাজে লেগেছে আমাদের। এই সময়ে আমরা দুটি উইকেট নিতে পেরেছি। সাকিব, তাইজুল খুব ভাল বল করেছে।তিন ম্যাচের সিরিজে ইতোমধ্যেই ২-০ তে এগিয়ে গেছে টাইগাররা। এর ফলে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়েও উন্নতি হয়েছে বাংলাদেশের। সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাকিংয়ের বিষয়েও কথা বলেছেন মুশফিক।এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘২-০ হলে ওদের (জিম্বাবুয়ের) উপরে আমরা যাব তা সিরিজের শুরুতেই জানতাম। এটা আমাদের জন্য অবশ্যই একটা সুযোগ। তবে আমাদের প্রক্রিয়াগুলো আমরা ঠিকভাবে সম্পন্ন করতে পারলে র‌্যাঙ্কিংটা যেরকম হওয়া দরকার সেরকমই হবে। সিরিজ ২-০ হওয়ায় আমরা অবশ্যই খুশি। তবে আমাদের এখনও অনেক কাজ আছে এবং সেগুলো ঠিকভাবে করতে হবে।র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতিটা অবশ্যই একটি ভালো বিষয়। তবে এ নিয়ে বেশি না ভাবাই ভালো বলে মনে করেছেন মুশফিক। তিনি বলেন, ‘র‌্যাঙ্কিং অবশ্যই একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কিন্তু এটা নিয়ে বেশি চিন্তা করলে চাপে অন্যরকম কিছু হতে পারে।
প্রথম টার্গেট যেটা ছিল সেটা অর্জন করেছি। তবে যে কোনো কিছু অর্জনের চেয়ে তা ধরে রাখাই বেশি কষ্টকর। সেদিক থেকে বলব, যতটুকু জানি সামনের বছরে আমাদের মাটিতেই সব খেলা। যেহেতু আমাদের হোমে রেকর্ড ভাল ফলে এর ধারাবাহিকতা যেন ঠিক থাকে সেটা লক্ষ্য রাখতে হবে বলেও জানান মুশফিক।