বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ৩ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

মুশফিকদের প্রস্তুতি ম্যাচ আজ

37000_s1

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল গ্রানাডাতে পৌঁছে গেছে বৃহস্পতিবার। টানা অনুশীলনে মুশফিক বাহিনী মাঠে ঘাম ঝরিয়েছেন গত দু’দিন। আজ গ্রানাডা একাদশের বিপক্ষে ৫০ ওভারের প্রস্ততি ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়েস্ট ইন্ডিজ মিশন। এরই মধ্যে গ্রানাডা ক্রিকেট এসোসিয়েশন (জিসিএ) ১৬ সদস্যের দলও ঘোষণা করেছে। যার নেতৃত্ব দিবেন আন্দ্রে ফ্লেচার। অন্যদিকে বাংলাদেশ দলও প্রস্তুত ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে চ্যালেঞ্জ নিতে। ২০শে আগস্ট তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ। মূল লড়াইয়ে নামার আগে এই প্রস্তুতি ম্যাচটি মুশফিক বাহিনীর জন্য বড় সুযোগ হিসেবে দেখছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার হাবিবুল বাশার সুমন। ক্যারিবীয় কন্ডিশনে মানিয়ে নিতে এই ম্যাচটি মুশফিকদের সহযোগিতা করবে বলে মনে করেন জাতীয় দলের এই সহযোগী নির্বাচক। গতকাল গ্রানাডা থেকে মুঠোফোনে দৈনিক মানবজমিন’কে হাবিবুল বাশার সুমন বলেন, ‘আমরা খুব ভালভাবেই পৌঁছেছি। গত দু’দিন দলের অনুশীলনটাও হয়েছে নিয়মিত। দলের সবাই ভাল আর সুস্থ আছে। প্রস্তুতি ম্যাচে নামার আগে মানসিকভাবেও দল চাঙ্গা। আমাদের জন্য এই ম্যাচটি ক্যারিবীয় কন্ডিশনে মানিয়ে নেয়ার একটি সুযোগ। বলা যায় বলাদেশ প্রস্তুতি চ্যালেঞ্জ নিতে।’ আজ প্রস্তুতি ম্যাচে জাতীয় দলের নেতৃত্ব দিবেন যথারীতি মুশফিকুর রহীম। গ্রানাডার প্রগ্রেস পার্কে হবে ম্যাচটি। পরে আগামী বুধ ও বৃহস্পতিবার গ্রানাডাতেই ওয়ানডে সিরিজের মূল লড়াইয়ে মাঠে নামবে সফরকারী বাংলাদেশ। এখানে হবে সিরিজের প্রথম দুই ওয়ানডে। আর শেষ ওয়ানডে সেন্ট কিটসে। তবে গ্রানাডা স্কোয়াডকে খাটো করে দেখার নেই বলেও জানালেন বাশার। তিনি বলেন, ‘গ্রানাডা স্কোয়াডেও বেশ ক’জন ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় দলের ক্রিকেটার আছেন। আশা করি লড়াইটা কম হবে না।’ গত ১৩ই আগস্ট বাংলাদেশ দল ওয়েস্ট ইন্ডিজের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ ছেড়ে যায়। ওয়েস্ট ইন্ডিজে আজ প্রস্ততি ম্যাচে প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে দলের সবাইকেই ঝালাই করে নিতে চাইবেন হয়তো। বিশেষ করে পুরানোদের মধ্যে যারা ফর্মে নেই তাদের পরীক্ষাটাই বেশি দিতে হবে। এর মধ্যে ওপেনার তামিম ইকবাল ও নাসির হোসেন অন্যতম। এছাড়াও নতুন ব্যাটসম্যানদের মধ্যে মিঠুনও আজ দলের হয়ে মাঠে নামতে পারেন। আর বোলারদের মধ্যে তরুণ তারকা তাসকিন আহমেদ ও আল আমিন হোসেনও হয়তো খেলবেন প্রস্তুতি ম্যাচে। গত ৮ মাস বাংলাদেশ দলে হতাশা ছাড়া আর কোন প্রাপ্তি ছিল না। দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ হার দিয়ে চলতি বছর বাংলাদেশ দলের হতাশার শুরু। পরে একে একে এশিয়া কাপ, টি- টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং সর্বশেষ ভারতের সাধারণ মানের একটি দলের বিপক্ষেও বাজে ভাবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ হারে বাংলাদেশ দল। এবার জাতীয় দলের সামনে সুযোগ এসেছে ঘুরে দাঁড়ানোর। কিন্তু চ্যালেঞ্জটা আরও কঠিন কারণ বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশ দলের পারফরমেন্স রেকর্ড এমনটিতে বেশ নাজুক। তবে জাতীয় দলের জন্য একটি স্মৃতি হয়তো বেশ জোরালো ভাবেই দলকে চাঙ্গা করবে। কারণ ২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টেস্ট ও ওয়ানডেতে হোয়াইট ওয়াশ করার কৃতিত্ব দেখিয়েছিল বাংলাদেশ।