শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১ কার্তিক ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

মঞ্জুর হত্যা মামলার রায় হয়নি, ফের শুনানি ২৭ ফেব্রুয়ারি

ersahad-manzur_67838
মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আবুল মঞ্জুর হত্যা মামলার রায় ঘোষণা হয়নি। আজ সোমবার মামলাটির রায় ঘোষণার তারিখ ধার্য থাকলেও তা প্রত্যাহার করে অধিকতর শুনানির জন্য আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি তারিখ ধার্য করেছেন আদালত।রায় ঘোষণার ধার্য তারিখ অনুযায়ী আদালতে হাজির ছিলেন এ মামলার প্রধান আসামি সাবেক প্রেসিডেন্ট ও জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। সকাল পৌনে ১১টার দিকে তিনি বিশেষ আদালতে আসেন। মামলার বিচারক হোসনে আরা আকতার এর স্থলে নতুন বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা জজ হাসান মাহমুদ ফিরোজ।মামলার প্রধান আসামি জাপা চেয়ারম্যন এইচ এম এরশাদ আদালতে উপস্থিত হওয়ায় নতুন বিচারক হাসান মাহমুদ ফিরোজ প্রাথমিক শুনানি শেষে রায় ঘোষণার তারিখ প্রত্যাহারের আদেশ ও অধিকতর শুনানির জন্য ২৭ ফেব্রুয়ারি তারিখ নির্ধারণ করেন।গত ২২ জানুয়ারি ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে স্থাপিত অস্থায়ী এজলাসে এ মামলার শুনানি শেষে বিচারক হোসনে আরা আকতার আজ সোমবার রায়ের জন্য দিন ধার্য করেছিলেন।এ নিয়ে মামলায় ২২ বার বিচারক বদল হয়েছে। অবশেষে রায়ের ১৩ দিন আগে প্রশাসনিক আদেশে বিচারক বদল অস্বাভাবিক ঘটনা বলে আইনজীবীরা অভিহিত করেছেন।মেজর জেনারেল মঞ্জুর হত্যা মামলায় এইচ এম এরশাদসহ মোট পাঁচজনের বিচার চলছে।প্রসঙ্গত, ১৯৮১ সালের ১ জুন মেজর জেনারেল মঞ্জুরকে পুলিশ হেফাজত থেকে চট্টগ্রাম সেনানিবাসে নিয়ে সেখানেই গুলি করে হত্যা করা হয়। হত্যাকা-ের ১৪ বছর পর ১৯৯৫ সালে জেনারেল মঞ্জুরের বড়ভাই আবুল মনসুর আহমেদ চট্টগ্রামের পাঁচলাইশ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই বছরই মামলাটির অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।১৯৯৫ সালের ১ মার্চ আসামি এমদাদুল হক, ১২ মার্চ মোহাম্মদ আবদুল লতিফ, শামসুর রহমান এবং ১৮ জুন মোস্তফা কামালকে গ্রেফতার করা হয়। একই বছরের ১১ জুন কারাগারে থাকা এরশাদকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। বর্তমানে আসামিরা সবাই জামিনে রয়েছেন।
উৎস-যুগান্তর