বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনিয়ম বন্ধে তদারকি বাড়ানোর পরামর্শ সংসদীয় কমিটির

image_109976.sangsad 1

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধে মন্ত্রণালয়কে তদারকি বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। কমিটির বৈঠকে বলা হয়, আইনের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে এবং প্রভাব বিস্তারের মাধ্যমে অনিয়ম করছে অনেক বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়। তাদেরকে নিয়ন্ত্রণে মন্ত্রণালয়কে আরো কঠোর হতে হবে।আজ মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এই সুপারিশ করা হয়। কমিটির সভাপতি ডা. মো. আফছারুল আমীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটি সদস্য শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, মো. আব্দুল কুদ্দুস, জাহাঙ্গীর কবীর নানক, ড. মোহাম্মদ হাছান মাহমুদ, ছলিম উদ্দীন তরফদার, গোলাম মোস্তফা, এস এম আবুল কালাম আজাদ, মো. মামুনুর রশিদ ও সেলিনা আক্তার বানু এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।কমিটি সূত্র জানায়, বেসরকারী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (ইউএসটিসি) নিয়ে আলোচনাকালে বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের অনিয়ম-দুর্নীতির বিষয় উঠে আসে। চাকরি বিধিমালাসহ বিভিন্ন দাবিতে শিক্ষক-চিকিৎসক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্দোলনে প্রায় দুই মাস ধরে বন্ধ রয়েছে ইউএসটিসি। ১৯৯২ সালে অনুমোদিত ঢাকার বাইরে স্থাপিত এ বিশ্ববিদ্যালয়টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন মানছে না বলে অভিযোগ রয়েছে। সেই অভিযোগ নিয়ে আলোচনা শেষে ইউএসটিসির অচলাবস্থা দূর করতে ইউজিসিকে আগামী ১৪ আগস্টের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। আর মন্ত্রণালয়কে প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ২৯ আগস্টের মধ্যে এ সংক্রান্ত সুপারিশ বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য বরাবর পাঠাতে বলা হয়েছে।বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি ডা. আফসারুল আমিন সাংবাদিকদের বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে প্রায়ই অভিযোগ ওঠে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় দেখভালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) রয়েছে। মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তাও তাদের মনিটরিং এ আছে। তারপরেও অনিয়ম হচ্ছে। কমিটি এসব বিষয়ে মন্ত্রণালয়কে কঠোর হওয়ার সুপারিশ করেছে। বেসরকারি ইউএসটিসির বিষয়ে কমিটির সভাপতি আরো বলেন, ইউজিসিকে এর আগেও সময় দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সমাধান হয়নি। এবার যদি তারা ব্যর্থ হয়, তবে আচার্য আইন অনুযায়ী প্রশাসক নিয়োগসহ অন্যান্য সিদ্ধান্ত নিবেন। এছাড়া বৈঠকে অবকাঠামোগত উন্নয়নে জোর না দিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।