বৃহস্পতিবার, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৭ মাঘ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

বাংলাদেশের সংকট সমাধানে ২৬ মার্চ ইইউর বৈঠক

images_237699

বাংলাদেশে চলমান রাজনৈতিক সংকট সমাধানে করণীয় ঠিক করতে আগামী ২৬ মার্চ বৈঠকে বসছে ইইউ’র মানবাধিকার বিষয়ক উপকমিটি।এই বৈঠক থেকেই বাংলাদেশ বিষয়ে জাতিসংঘকে পরামর্শ দেয়া হবে বলে কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে।আগামী ২৬ মার্চ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে ব্রাসেলসে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে। জাতিসংঘও পর্যন্ত এ বৈঠকের জন্য অপেক্ষা করছে বলে জানা গেছে।কূটনৈতিক সূত্র জানায়, বাংলাদেশের চলমান সংকট, মানবাধিকার পরিস্থিতি, বাকস্বাধীনতা, নাগরিক অধিকার ও গণতন্ত্রের ভবিষ্যত সম্পর্কে করণীয় ঠিক করতে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে।পাশাপাশি বাংলাদেশে বিনাবিচারে রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষকে যে হত্যার অভিযোগ দেশটির কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে রয়েছে তা বন্ধে করণীয় নিয়েও সম্ভাব্য ওই বৈঠকে আলোচনা হবে।২৬ মার্চ তারিখের বৈঠকে ৬টি এজেন্ডা থাকছে। বৈঠকে বাংলাদেশে সম্প্রতি সফর করে যাওয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের মানবাধিকার বিষয়ক উপকমিটির (ড্রই ডেলিগেশন) রিপোর্ট উপস্থাপন করা হবে।বৈঠকে বাংলাদেশের সামগ্রিক অবস্থার বিষয়ে সরেজমিন অভিজ্ঞতা, পর্যালোচনা এবং তাদের মূল্যায়ন প্রতিবেদন তুলে ধরবেন প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেয়া ক্রিস্টিয়ান ড্যান প্রিদা।এবারের বৈঠকে শুধু বাংলাদেশ প্রসঙ্গই গুরুত্ব দিয়ে দেখা হবে। পাশাপাশি সার্কভুক্ত দেশ নেপালের পরিস্থিতি নিয়ে একটি পর্যবেক্ষণ রিপোর্ট উপস্থাপন করা হবে।গত ১৬ থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাংলাদেশ সফর করে গেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের মানবাধিকার বিষয়ক উপকমিটির একটি প্রতিনিধি দল।সফর শেষে মূল্যায়ন প্রতিবেদন নিয়ে ২৬ ফেব্রুয়ারি ব্রাসেলসে একটি বৈঠক হয়। কিন্তু বিশেষ কোন অবস্থায় পৌঁছাতে পারে নি তারা। পরবর্তীতে গত ১২ থেকে ১৬ মার্চের মধ্যে বৈঠকটি হওয়ার কথা থাকলেও হয়নি।কূটনৈতিক সূত্র জানায়, বাংলাদেশ পরিস্থিতি নিয়ে একটা সন্তোষজনক সমাধানের দিকে এগোনোর জন্যই বৈঠকটি করতে অনেকটা সময় নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকার পরিস্থিতি নিয়ে বিভিন্নভাবে আরো তথ্য সংগ্রহ করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।