শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

ফিরেই চমক সাকিবের

47380_s1

 

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার তকমা তার গায়ে। শত বিতর্কের পরও মাঠে তার ঘূর্ণি জাদু অব্যাহত রাখলেন। জিম্বাবুয়ে শিবিরে একের পর এক উইকেট তুলে নিয়ে সব বিতর্ক এক ফুৎকারেই উড়িয়ে দেন সাকিব আল হাসান। তিন স্পিনারের আঘাতে জিম্বাবুয়ের প্রথম ইনিংস গুটিয়ে যায় ২৪০ রানে। ৬ উইকেট পাওয়া সাকিবের সঙ্গে অন্য দুই স্পিনার জুবায়ের ২টি ও তাইজুল একটি উইকেট তুলে নেন। পেসারদের মধ্যে ১৯ মাস পর মাঠে ফিরে শাহাদাত রাজীব নিয়েছেন একটি উইকেট।  অস্ট্রেলিয়া ছাড়া এই পর্যন্ত সব টেস্ট খেলুড়ে দেশের বিপক্ষে সাকিব খেলেছেন। ওই ৮টি দেশের বিপক্ষেই তিনি ইনিংসে ৫টি উইকেট পাওয়ার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে। এর মধ্যে ৪টি দেশের বিপক্ষে ২ বার করে এই কৃতিত্ব দেখান তিনি। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৪টি টেস্ট ম্যাচ খেলার পর এবারই প্রথম ৬টি উইকেট নিয়েছেন। গতকাল এই জন্য তিনি খেলেছেন ২৪.৫ ওভার ও খরচ করেছেন ৫৯ রান। গতকাল তৃতীয় বারের মতো ৬টি উইকেট শিকার করেন তিনি।  সাবিক এ পর্যন্ত ১২ বার ইনিংসে ৫টির বেশি উইকেট শিকারের কৃতিত্ব দেখিয়েছেন।
জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেইলর টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বড় স্কোর গড়ার আশায়। কিন্তু সাকিবের হাতে অষ্টম ওভারের বল আসতেই যেন চোখেমুখে সর্ষে ফুল দেখতে শুরু করে টেইলরের দল। যদিও জিম্বাবুয়ে শিবিরে প্রথম ধাক্কা দেন পেসার শাহাদাত হোসেন রাজীব। ৬ রান করা সিবান্দাকে ফিরিয়ে তিনি তার প্রত্যাবর্তন উদযাপন করেন। এরপর স্পিন নিয়ে ভয়কে জয় করার চেষ্টা চালিয়েছিলেন সিকান্দার রাজা ও হ্যামিলটন মাসাকাদজা। কিন্তু হ্যামিলটনকে দিয়ে শুরু করেন সাকিব। ১৩ রান করে ফিরে গেলে সেই ২৫ রানের জুটি ভাঙে। এরপর টেইলর ও সিকান্দার রাজা ৫২ রানের জুটি গড়ে প্রাথমিক ধাক্কা সামলানোর চেষ্টা করেন। তবে দলীয় ৮৩ রানের সময় টেইলরকে ২৮ রানে ফিরিয়ে অভিষেক উইকেট তুলে নেন জুবায়ের হোসেন লিখন। সেখান থেকেই শুরু জিম্বাবুয়ের পতন। দলীয় ১২৮ রানের সময় ফিফটি তুলে নেয়া সিকান্দার রাজাকেও সাজঘরের পথ দেখিয়ে অভিষেকে দ্বিতীয় উইকেট তুলে নেন জুবায়ের। রাজা ১২২ বলে খেলেন ৫১ রানের ইনিংস। তার করা টেস্ট ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় ফিফটিই জিম্বাবুয়ের একমাত্র পঞ্চাশোর্ধ ইনিংস। এরপর অবশ্য সাকিব আতঙ্ক হয়ে ধরা দেন জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের সামনে।
তবে মাঝে ক্রেইগ আরভিন ও উইকেট কিপার চাকাভা ৫০ রানের জুটি গড়ে ইনিংস মেরামতের চেষ্টা চালান। সেখানেও আঘাত হানেন সাকিব।  ২৫ রান করা চাকাভাকে আউট করে সেই জুটি ভাঙেন। আর ৬৫ বলে ৩৪ রান করা আরভিনকে আউট করেন আরেক স্পিনার তাইজুল ইসলাম। এরপর অবশ্য জন নাম্বু, পানিয়াঙ্গরা ও কামুনগুজিকে আউট করতে বেশি সময় নেননি সাকিব।
সাকিবের এক ইনিংসে পাঁচের বেশি উইকেট
বোলিং    প্রতিপক্ষ    ভেন্যু    তারিখ
৭/৩৬    নিউজিল্যান্ড    চট্টগ্রাম    ১৭ অক্টোবর, ২০০৮
৫/২৩০    দ. আফ্রিকা    ব্লুইমফন্টেইন    ১৯ নভেম্বর, ২০০৮
৬/৯৯    দ. আফ্রিকা    সেঞ্চুরিয়ন    ২৬ নভেম্বর, ২০০৮
৫/৭০    শ্রীলঙ্কা    ঢাকা    ২৬ ডিসেম্বর, ২০০৮
৫/৭০    ও. ইন্ডিজ    সেন্ট জর্জেস    ১৭ জানুয়ারি, ২০০৯
৫/১২১    ইংল্যান্ড    ম্যানচেস্টার    ৪ জানুয়ারি, ২০১০
৫/৬২    ভারত    চট্টগ্রাম    ১৭ জানুয়ারি, ২০১০
৫/৬৩    ও. ইন্ডিজ    ঢাকা    ২৯ অক্টোবর, ২০১১
৬/৮২    পাকিস্তান    ঢাকা    ১৭ ডিসেম্বর, ২০১১
৫/১০৩    নিউজিল্যান্ড    ঢাকা    ২১ অক্টোবর, ২০১৩
৫/১৪৮    শ্রীলঙ্কা    চট্টগ্রাম    ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪
৬/৫৯    জিম্বাবুয়ে    ঢাকা    ২৫ অক্টোবর, ২০১৪
টেস্টে বাংলাদেশের সেরা পাঁচ বোলিং
বোলার    বিপক্ষ    উই.    ইকো.    ভেন্যু    তারিখ
সাকিব আল হাসান    নিউজিল্যান্ড    ৭/৩৬    ১.৩৯    চট্টগ্রাম    ১৭ই অক্টো, ২০০৮
এনামুল হক জুনি.    জিম্বাবুয়ে    ৭/৯৫    ২.৭১    ঢাকা    ১৪ই জানু, ২০০৫
শাহাদত হোসেন    দ. আফ্রিকা    ৬/২৭    ১.৭৪    ঢাকা    ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০০৮
এনামুল হক জুনি.    জিম্বাবুয়ে    ৬/৪৫    ২.০১    চট্টগ্রাম    ৬ই জানুয়ারি, ২০০৫
সাকিব আল হাসান    জিম্বাবুয়ে    ৬/৫৯    ২.৩৭    ঢাকা    ২৫শে অক্টোবর, ২০১৪

স্কোর কার্ড
বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে
শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম, মিরপুর, ঢাকা
১ম টেস্ট, ১ম দিন
জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংস
ব্যাটসম্যান    রান    বল    ৪    ৬
সিবান্দা ক মুশফিক ব শাহাদাত    ৬    ৫    ১    ০
সিকান্দার ক মুনিমুল ব জুবায়ের    ৫১    ১২২    ৬    ০
মাসাকাদজা ক জুবায়ের ব সাকিব    ১৩    ৩২    ২    ০
টেইলর ক তাইজুল ব জুবায়ের    ২৮    ৬২    ৩    ১
চিগুম্বুরা ক মুমিনুল ব সাকিব    ২৯    ৫৩    ৪    ০
এরভিন ক মুমিনুল ব তাইজুল    ৩৪    ৬৫    ৫    ০
চাকাভা ক শামসুর ব সাকিব    ২৫    ৬২    ১    ১
নাইউম্বু এলবি সাকিব    ১৪    ১৪    ২    ০
পানিয়াঙ্গারা ক আইউব ব সাকিব    ৮    ১৫    ২    ০
চাতারা অপরাজিত    ১৪    ১৭    ১    ১
কামুঙ্গোজি ক শামসুর ব সাকিব    ৫    ৯    ০    ০
অতিরিক্ত: (ব ১২, নব ১)    ১৩
মোট: (অল আউট ৭৫.৫)    ২৪০
উইকেট পতন: ১-৬ (সিবান্দা), ২-৩১ (মাসাকাদজা), ৩-৮৩ (টেইলর), ৪-১২৮ (সিকান্দার), ৫-১৪২ (চিগুম্বুরা), ৬-১৯২ (এরভিন), ৭-২০০ (চাকাভা), ৮-২২১ (নাইউম্বু), ৯-২৩০ (পানিয়াঙ্গারা), ১০-২৪০ (কামুঙ্গোজি)।
বোলিং: শাহাদাত ১৪-১-৪৫-১, আল-আমিন ৮-২-২২-০, সাকিব ২৪.৫-৫-৫৯-৬, তাইজুল ১৩-৩-৪২-১, জুবায়ের ১৫-১-৫৮-২, মাহমুদুল্লাহ ১-০-২-০।
বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস
তামিম ক মাসাকাদজা ব পানিয়াঙ্গারা    ৫    ১০    ০    ০
শামসুর রহমান অপরাজিত    ৮    ৪১    ১    ০
মুমিনুল হক অপরাজিত    ১৪    ২১    ১    ০
অতিরিক্ত:    ০
মোট: (১ উইকেট, ১২ ওভার)    ২৭
উইকেট পতন: ১-১০ (তামিম)
বোলিং: পানিয়াঙ্গারা ৫-০-২০-১, চাতারা ৫-২-৫-০, চিগুম্বুরা ১-১-০-০, নাইউম্বু ১-০-২-০।
টস: জিম্বাবুয়ে (ব্যাটিং)
অবস্থা: বাংলাদেশ ২১৩ রানে পিছিয়ে, হাতে ৯ উইকেট।