শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

ফিফার স্বপ্নের একাদশে চার ব্রাজিলিয়ান!

3_18277

বিশ্বকাপ শেষ। পেরিয়েছে পাঁচদিন। চ্যাম্পিয়ন জার্মানি এখনো ভাসছে উৎসবের আনন্দে। রানার্সআপ আর্জেন্টিনায়ও রয়েছে উৎসব উৎসব ভাব। পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল এখনো শোকস্তব্ধ। বিশ্বকাপের পর ফিফা গতকাল যে র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ করেছে, তাতেও স্থানের পরিবর্তন হয়েছে ব্যাপক। এই প্রথম র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠে এসেছে জার্মানি। চার ধাপ নেমে গেছে ব্রাজিল। এমন পরিস্থিতি যখন, তখন ফুটবলের শাসক গোষ্ঠী ফিফা ঘোষণা করেছে তাদের স্বপ্নের একাদশ। তাতে বিস্মিত করে জায়গা পেয়েছেন চার ব্রাজিলিয়ান। চারজন রয়েছেন চ্যাম্পিয়ন জার্মানির। দুজন আর্জেন্টিনার এবং একজন কলম্বিয়ার। দলের অধিনায়ক নির্বাচিত করা না হলেও কোচ বানানো হয়েছে জার্মানির জোয়াকিম লো-কে। সমর্থকদের ভোটে দলের ফরমেশন সাজানো হয়েছে ৪-৩-৩।

ব্রাজিল মিলিয়ে এবারের বিশ্বকাপে গোল খেয়েছে ১৪টি। যার ১০টি শেষ দুই ম্যাচে। সেমিফাইনালে জার্মানির কাছে ৭ এবং স্থান নির্ধারণী ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের কাছে ৩ গেল। এতেই ফুটে উঠেছে ব্রাজিলের রক্ষণভাগের দৈন্যদশা। সেই রক্ষণভাগের তিন খেলোয়াড় থিয়াগো সিলভা, ডেভিড লুইজ ও অ্যালেঙ্সি স্যাঞ্চেজ। বাকি জন জার্মানির ম্যাট হুমেলস। রক্ষণভাগে আলো ছড়েছেন আর্জেন্টিনার জাভিয়ার মাসচারানো, রোজো, গেরে, জার্মানির জেরেমি বোয়েটাং, বেলজিয়ামের ভার্টন গ্যাং, নেদারল্যান্ডসের ভিলাররা। অথচ রক্ষণভাগে তিন ব্রাজিলিয়ানের অন্তর্ভুক্তি বিস্ময়ের জন্ম দিয়েছে। গোলরক্ষণে যোগ্য লোকই সুযোগ পেয়েছেন। অসাধারণ খেলেছেন জার্মানির ম্যানুয়েল নিওয়ার। তবে মেক্সিকোর গুইলার্মো ওচোয়া, কোস্টারিকার নাভাস, আর্জেন্টিনার সার্জিও রোমেরোও তুখোর পারফরম্যান্স করেছেন আসরে। মধ্যমাঠে সুযোগ পেয়েছেন আর্জেন্টিনার অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। আলবিসেলিস্তাদের পক্ষে মেসির পরে সেরা পারফরমার ছিলেন ডি মারিয়া। এছাড়া ৬ গোল করে গোল্ডেন বুট জেতা কলম্বিয়ার জেমস রদ্রিগেজও রয়েছেন স্বপ্নের একাদশে। মধ্যমাঠের তৃতীয় ফুটবলার জার্মানির টনি ক্রুস। আক্রমণভাগে সুযোগ পেয়েছেন আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসি, জার্মানির থমাস মুলার ও ব্রাজিলে নেইমার দ্য জুনিয়র। গোল্ডেন বল জয়ী মেসি আসরে গোল করেছেন ৪টি। মুলার করেছেন ৫টি এবং ৪টি করেছেন নেইমার।

ফিফার ‘ড্রিম টিম’

গোলরক্ষক : ম্যানুয়েল নিওয়ার (জার্মানি)

ডিফেন্ডার : থিয়াগো সিলভা (ব্রাজিল), ডেভিড লুইস (ব্রাজিল), অ্যালেঙ্সি মার্সেলো (ব্রাজিল) ও ম্যাট হুমেলস (জার্মানি)

মিডফিল্ডার : অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া (আর্জেন্টিনা), জেমস রদ্রিগেজ (কলম্বিয়া) ও টনি ক্রুজ (জার্মানি)

ফরোয়ার্ড : লিওনেল মেসি (আর্জেন্টিনা), টমাস মুলার (জার্মানি), নেইমার (ব্রাজিল)

কোচ : জোয়াকিম লো (জার্মানি)