রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

প্রকৃত হত্যাকারীদের আড়াল করতেই আলেমদের জড়ানো হচ্ছে

40132_faruki

টিভি উপস্থাপক মাওলানা শাইখ নূরুল ইসলাম ফারুকী’র প্রকৃত হত্যাকারীদের আড়াল করতে হত্যাকান্ডে জনপ্রিয় টিভি উপস্থাপক ও বরেণ্য আলেমদের জড়ানো হচ্ছে বলে দাবি করেছে এসোসিয়েশন অব ইসলামিক মিডিয়া পারসোনালিটিজ। গতকাল সংগঠনটির পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই দাবি করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে দেশের অন্যতম জনপ্রিয় টিভি উপস্থাপক ও বরেণ্য আলেম মাওলানা শাইখ নূরুল ইসলাম ফারুকীর নৃশংস হত্যাকান্ডের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। সংগঠনটির আহ্বায়ক আরকানুল্লাহ হারুনী স্বাক্ষরিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, মর্মান্তিক এ হত্যাকান্ড সকল সভ্য মানুষকেই মর্মাহত করেছে। এর সাথে জড়িত প্রকৃত অপরাধীদের গ্রেপ্তার ও তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি আজ দেশের আলেম সমাজের। কিন্তু হত্যাকারীদের উপযুক্ত শাস্তি যখন সবার আকাংখা তখন একটি স্বার্থান্বেষী মহল পুরো ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। রাজনৈতিক পরিচয়ে অতি উৎসাহী হয়ে নানান কল্পকাহিনী রচনা করে দেশের ৬ জন বিশিষ্ট আলেমকে ওই মামলায় অন্তর্ভুক্ত করতে আদালতের কাছে আবেদন করা হয়েছে। যা আলেম সমাজসহ সকল সচেতন মানুষকে বিস্মিত করেছে। বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করা হয়, কাওরান বাজার ঢাকা ট্রেড সেন্টারে অবস্থিত এটিএন বাংলার ইসলামী অনুষ্ঠান বিভাগের কার্যালয়ে গত ২২শে আগস্ট কোনো সভা হয়নি। গত ২৩শে আগস্ট সেখানে একটি মতবিনিময়মূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার উদ্দেশ্য ছিলো- দেশের বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার ইসলামী অনুষ্ঠানের উপস্থাপক, আলোচক, অনুষ্ঠান নির্মাতা, প্রযোজক এবং প্রিন্ট মিডিয়ার ইসলামিক বিষয়ে কলামিস্টদের নিয়ে একটি এসোসিয়েশন গঠনের জন্য মতবিনিময় করা। এধরণের একটি আনুষ্ঠানিক আয়োজনে কারো প্রতি বিষোদগার কিংবা কাউকে হত্যার পরিকল্পনা করার অভিযোগ কেবল ভিত্তিহীনই নয়, হাস্যকরও বটে। তাছাড়া উক্ত বৈঠকে যদি মাওলানা ফারুকী সাহেবকে হত্যার আলোচনা বা পরিকল্পনা করা হয়ে থাকতো, তাহলে উপরোক্ত মহলটি হত্যাকান্ডের আগে বিষয়টি আইনশৃঙ্খলাবাহিনীকে কেন জানাননি। এটা আজ গোটা জাতির প্রশ্ন। সুতরাং আমরা মনে করি মাওলানা ফারুকী হত্যার ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করে সুযোগ সন্ধানী মহলটি ফায়দা হাসিলের ষড়যন্ত্রে চালাচ্ছে। ঘটনাটি ভিন্নখাতে নেয়া হলে প্রকৃত অপরাধীরা আড়াল হওয়ার সুযোগ পাবে এবং এ ধরণের ষড়যন্ত্র দেশের খ্যাতনামা আলেমদের সামাজিক ভাব মর্যাদা ক্ষুণœ করবে।