বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

পেঁয়াজের ঝাঁজ বাড়ছেই

1_119813

বাজারে পেঁয়াজের কোনো সংকট নেই। দেশের উৎপাদনও ভালো। আমদানি হয়েছে চাহিদারও বেশি। তারপরও বাড়ছে পেঁয়াজের ঝাঁজ। কয়দিন ধরে ক্রমাগতই বাড়ছে। ভারত সরকার পেঁয়াজের রফতানি মূল্য বাড়িয়েছে। তার প্রভাব পড়ার কথা আরও কমপক্ষে দু’সপ্তাহ পর। কিন্তু না, ভারতে মূল্য বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশেও বেড়ে গেছে পেঁয়াজের দাম। কোনো কারণ নেই, তারপরও কৃত্রিমভাবে দাম বাড়ানো হচ্ছে পেঁয়াজের। ৩০ টাকার পেঁয়াজ এখন ৪৬ টাকায় কিনতে হচ্ছে ভোক্তাকে।
তবে ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বাড়ার কারণ থাকলেও দেশী পেঁয়াজের দাম কেন বাড়ছে তার কারণ অজানা। ব্যবসায়ীরা জানান, দেশী পেঁয়াজের দাম বাড়ার কারণ নেই। চাষীরা রমজানে একটু বাড়তি দামের আশায় পেঁয়াজ গুদামজাত করে রেখেছেন। যে কারণে মোকামেই দেশী পেঁয়াজের দাম চড়া।
কারওয়ান বাজারে রোববার প্রতিকেজি দেশী পেঁয়াজ ৪৪ এবং ভারতীয় মোটা নাসিক পেঁয়াজ ৪৬ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। পাইকারি আড়ত শ্যামবাজারে প্রতিকেজি দেশী পেঁয়াজ ৩৮ এবং ভারতীয় পেঁয়াজ ৩৯ টাকা দরে বিক্রি হতে দেখা গেছে। অথচ ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) দেয়া তথ্য অনুযায়ী এক সপ্তাহ আগে প্রতিকেজি দেশী পেঁয়াজ ৩৫ টাকা থেকে ৪০ এবং ভারতীয় পেঁয়াজ ৩৫ টাকা থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে।
ব্যবসায়ীরা বলছেন, সামনে দাম আরও বাড়বে। ভারতের পেঁয়াজের উপরই বাংলাদেশের বাজার নির্ভরশীল। দেশে যে পেঁয়াজ হয় তা অপ্রতুল। রমজানে পেঁয়াজের চাহিদা থাকে সর্বোচ্চ। ঠিক এ সময়েই ভারতে মূল্য বাড়ায় এদেশের ভোক্তাদের পকেট কাটা যাবে ব্যাপকভাবে। কারণ, রমজানে প্রতিটি খাদ্য পণ্যেই পেঁয়াজের ব্যবহার রয়েছে অনেক বেশি।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য মতে, পেঁয়াজের মাসিক চাহিদা ১ লাখ ৪০ হাজার টন। রমজান মাসে এ চাহিদা বেড়ে দাঁড়ায় প্রায় ৩ লাখ টনে। রোজা শুরুর আগে থেকেই দেশের ব্যবসায়ীদের কাছে মজুদ ছিল ৫ লাখ ২২ হাজার টন পেঁয়াজ। অর্থাৎ চাহিদার তুলনায় ২ লাখ ২২ হাজার টন পেঁয়াজ বেশি মজুদ রয়েছে। সুতরাং রমজানের বাজারে পেঁয়াজের কোনো সংকট বা দাম বৃদ্ধির কোনো কারণ ছিল না। অথচ বাজারচিত্র ঠিক উল্টো। পাইকারি ব্যবসায়ী শামসুল ইসলামের মতে, ভারত দাম বাড়ানোতেই দেশের বাজারে প্রভাব পড়েছে। তবে বাজারে পেঁয়াজের কোনো সংকট নেই। কিছুটা গুজবেও দাম বাড়ছে পেঁয়াজের। সবার মনে শংকা ভারত দাম বাড়িয়েছে, বাজারেও দাম আরও বাড়বে। এজন্য অনেকেই পেঁয়াজ মজুদ করে রাখছে বলেও তিনি জানান।

উৎস- যুগান্তর