শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

নগরীতে নার্সের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু

নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে নার্সের অবহেলা এবং অব্যবস্থাপনায় এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় ওই নবজাতকের বাবা জাহেদুল আলম মৌখিকভাবে পাঁচলাইশ থানায় অভিযোগ করেছেন। জাহেদুল আলমের বাড়ি হাটহাজারী উপজেলায়।
জাহেদুল আলম অভিযোগ করেন, গত ২৯ জানুয়ারি হাটহাজারীর একটি হাসপাতালে সিজার অপারেশনের মাধ্যমে তাঁর স্ত্রী রুনা আক্তার (২৪) পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওইদিন দুপুর আড়াইটার দিকে নগরীর বেসরকারি হাসপাতাল বেবী কেয়ারে ভর্তি করান।
সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, নবজাতকের জন্য ভ্যান্টিলেটরের ব্যবস্থা করতে হবে। এসময় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায় ব্যবস্থাটি তাদের রয়েছে। কিন্তু রাত সাড়ে পাঁচটার দিকে আবারো জানানো হয় তাদের কাছে ভ্যান্টিলেটরের ব্যবস্থা নেই, শিশুটিকে অন্য কোথাও পাঠাতে হবে। এসময় সিএনজি অটোরিকশা যোগে নবজাতককে নগরীর আরেকটি বেসরকারি হাসপাতালে নেয়ার প্রস্তুতিকালে নার্সের অবহেলা এবং অব্যবস্থাপনায় শিশুটির অক্সিজেনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এতে শিশুটির মৃত্যু হয়।
এদিকে ঘটনাস্থল ঘুরে আসা পাঁচলাইশ থানার এসআই আজিজুল বলেন, মৃত শিশুটির পরিবারের দাবি নার্সের ভুলে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছেন, বাইরে সিজার অপারেশন করিয়ে নবজাতকসহ তার মা রুনা আক্তারকে বেবী কেয়ারে ভর্তি করা হয়। আজ ভোরে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। এতে তাদের কোনো ধরনের অব্যবস্থাপনা ছিলো না। মৃত শিশুর বাবা থানায় আছেন, ওসি স্যারের সাথে কথা বলে পরবর্তি পদক্ষেপ নেয়া হবে।