শনিবার, ৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

গলা ভাঙায় বাড়িতে যা করবেন…

16311_health

আপাতদৃষ্টে, গলা ভাঙা বা স্বর বসে যাওয়া একটি সাধারণ স্বাস্থ্য-সমস্যা মনে হলেও, আদতে তা নয়। গলা ভাঙ্গাকে অনেকেই খুব একটা গুরুত্ব দেয়ার প্রয়োজন মনে করেন না। এটা অনেকেরই হয়তো অজানা যে, গলা ভাঙ্গা অনেক সময় মারাত্মক অসুখের উপসর্গের কারণ হতে পারে। সাধারণভাবে, গলা ভাঙ্গার প্রাথমিক কারণ হলো শ্বাসনালীতে সংক্রমণ। নাক, কান ও গলা বিশেষজ্ঞদের মতে, তুলনামূলকভাবে নারীদের গলার স্বর বেশি বসে। নানা কারণে গলা ভাঙতে পারে। যে কোনভাবে ঠাণ্ডা লেগে কিংবা দীর্ঘক্ষণ জোরে কথা বললে গলার স্বর ভাঙতে পারে। গলা ভাঙা প্রতিরোধে সচেতনতাই যথেষ্ট। আর তারপরও যদি গলার স্বর বসে যায়, সেক্ষেত্রে প্রতিকারস্বরূপ বাড়িতেই নিচের যে কোন ব্যবস্থা নিতে পারেন:

১) লবণ পানি দিয়ে গড়গড়া করাটা সবচেয়ে সাধারণ এবং একই সঙ্গে কার্যকর পদ্ধতি। পানি সামান্য গরম করে নিতে পারেন। কারও গলার স্বর বসে গেল, তার উচিত দিনে অন্তত ৪ বার লবণ পানি দিয়ে গড়গড়া করা। লবণ-পানি পছন্দ না হলে, লবণ-পানির সঙ্গে সামান্য মধু মিশিয়ে নিতে পারেন।
২) বিকল্প পথও রয়েছে। লবণের পরিবর্তে আপনি হালকা গরম পানিতে যষ্টিমধুর গুঁড়া মিশিয়ে গড়গড়া করতে পারেন।
৩) হালকা গরম লেবু পানির সঙ্গে মধু মিশিয়ে পান করলে গলাব্যথা থেকে নিষ্কৃতি পাবেন আপনি। শুধু হালকা গরম পানিতে কিংবা হার্বাল বা ভেষজ চায়ের সঙ্গে মধু মিশিয়ে পান করতে পারেন। এতে আপনার গলাব্যথা অনেকটা উপশম হবে।
৪) ভাঙা গলায় আদাও বেশ কার্যকর। শুকনো আদায় ব্যাকটেরিয়া ধ্বংসকারী উপাদান রয়েছে, যা আপনার গলার বসে যাওয়া স্বরকে স্বাভাবিক করে তুলতে পারে। তাছাড়া, উপকারের জন্য আদা চা বা লবঙ্গ চা পান করতে পারেন। রসুনও গলার ব্যথা খানিকটা উপশম করতে পারে।