শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

খালেদা জিয়ার লিভ টু আপিলের শুনানী ১৬ নভেম্বর

khaleda-zia-bnp_171364
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার অভিযোগ গঠনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দায়ের করা লিভ টু আপিলের শুনানির জন্য আগামী ১৬ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন সুপ্রীম কোর্টের আপিল বিভাগ।
রোববার প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের আপিল বিভাগ এদিন ধার্য করেন।আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন।অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম দুদকের পক্ষে আইনজীবী খুরশিদ আলম খান। এদিকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে দায়ের করা দুর্নীতির দুই মামলায় পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ২৪ নভেম্বর ধার্য করেছেন আদালত। রোববার পুরান ঢাকার বকশীবাজার এলাকায় আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে অবস্থিত তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক বাসুদেব রায় এ দিন ধার্য করেন।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য রোববার দিন ধার্য ছিল। হাজিরা দিতে বেলা ১১টার দিকে আদালতে পৌঁছান বিএনপি চেয়ারপারসন। কিন্তু দুই মামলায় বিচারিক আদালতে অভিযোগ গঠনকারী বিচারক নিয়োগের বৈধতার ও অভিযোগ গঠনের বৈধতা বিষয়ে হাইকোর্টে আবেদন খারিজের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগের আদেশের অপেক্ষায় থাকায় খালেদার আইনজীবীরা সময়ের আবেদন করেন। আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের এ দিন দিন ধার্য করে। আদালত থেকে বেরিয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, এ মামলায়  বেআইনিভাবে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। এখানে আমরা ন্যায় বিচার পাব না। আর এ কারণে আমরা আদালত স্থানান্তরের আবেদন করেছি। উচ্চ আদালতে এটি শুনানির জন্য অপেক্ষমান রয়েছে। উচ্চ আদালতে ওই আবেদনের নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত সাক্ষ্যগ্রহণ মুলতবির আবেদন করেছি। বিচারক তা মঞ্জুর করেছেন।