শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

ক্ষোভের আগুনে ফার্গুসন কঠোর মনোভাব ওবামার

1_46111

 

যুক্তরাষ্ট্রের ফার্গুসনে দ্বিতীয় দিনের মতো সহিংস বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। এ অবস্থায় মিসৌরির গভর্নর জে নিঙ্ন সেখানে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের সংখ্যা বাড়িয়েছে। বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে চলমান এ আন্দোলনের ঢেউ দেশটির অন্যান্য স্থানেও ছড়িয়ে পড়ছে। এদিকে আদালতের রায় মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তিনি বলেছেন, আদালতের রায় কারো মনমতো নাও হতে পারে। তাই বলে রায়ের বিরুদ্ধে ধ্বংসাত্দক কোনো কর্মকাণ্ড মেনে নেওয়া হবে না। যারা পরিস্থিতি খারাপ করছে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। তাদের শাস্তি পেতে হবে। এদিকে কৃষ্ণাঙ্গ যুবককে হত্যাকারী পুলিশ সদস্যকে অভিযোগ থেকে গ্র্যান্ড জুরি বোর্ড অব্যাহতি দেওয়ার পর স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সেন্ট লুইস এলাকার রাস্তাঘাট বন্ধ করে দেন বিক্ষুব্ধ জনতা। যানবাহনে আগুন দেওয়া ছাড়াও পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বিক্ষোভ দমনে ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে কয়েকজন নারীও রয়েছেন। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পিপার স্প্রে ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করা হয়েছে। ফার্গুসনে বিক্ষুব্ধদের লক্ষ্য করে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলিবর্ষণও করে পুলিশ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আধা সামরিক বাহিনীর দুই সহস্রাধিক সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। দ্বিতীয় দিনের মতো নিউইয়র্ক, ওয়াশিংটন ডিসি, শিত্তেল, অকল্যান্ড, নিউ জার্সি, পোর্টল্যান্ড, মেইনে, ক্লেভল্যান্ড, বোস্টন, মিশিগান, জর্জিয়া উইসকনসিন, ম্যাসাচুসেটস, বাল্টিমোরসহ বেশ কয়েকটি স্থানে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রসঙ্গত, ৯ আগস্ট পুলিশের গুলিতে নিহত হয় মাইকেল ব্রাউন (১৮) নামে এক কিশোর। বিবিসি, আল জাজিরা।